বাংলা নিউজ > ময়দান > চিনে নিন ৮৩-র বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের 'নেপথ্য নায়ক' পিআর মান সিংকে

শুভব্রত মুখার্জি: ১৯৮৩ সালে কপিল দেবের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় সিনিয়র ক্রিকেট দল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথমবার বিশ্বকাপ ফাইনাল জিতেছিল। যা ভারত তো বটেই বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসেও ঐতিহাসিক জয়। সম্প্রতি ৮৩'র এই ঐতিহাসিক বিশ্বকাপ জয়ের উপর তৈরি হয়েছে একটি ছবি। মুখ্য ভূমিকায় অর্থাৎ কপিল দেবের চরিত্রে অভিনয় করেছেন রণবীর সিং। সেই ছবিতে পঙ্কজ ত্রিপাঠি অভিনয় করেছেন পিআর মান সিংয়ের চরিত্রে। ৮৩'র বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের নেপথ্য নায়ক মান সিং। ভারতীয় দলের সেবারের টিম ম্যানেজার ছিলেন পিআর মান সিং।

১৯৭৫ এবং ১৯৭৯ সালে বিশ্বকাপজয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের শিরোপা জয়ের হ্যাটট্রিক আটকে দেওয়া হয়েছিল। দলের টিম ম্যানেজার ছিলেন পিআর মান সিং। ফাইনালের ভারত মাত্র ১৮৩ রানে অলআউট হয়ে গেলেও ভিভ রিচার্ডস, গর্ডন গ্রীনিজ, ক্লাইভ লয়েডের মতো ব্যাটার সমৃদ্ধ ক্যারিবিয়ানরা সেই ম্যাচ ৪৩ রানে হেরে গিয়েছিল। দলের জয়ের নেপথ্য নায়ক পিআর মান সিং সম্বন্ধে বলতে গিয়ে রনবীর সিং ইন্সটাগ্রামে লিখেছিলেন ভারতীয় দলের 'ব্যাকবোন' সঠিক ভাষায় টিম ইন্ডিয়ার 'ম্যান ম্যানেজার'।

প্রসঙ্গত ভারতীয় দলের টিম ম্যানেজার হওয়ার আগে পিআর মান সিং নিজে একজন প্রফেশনাল ক্রিকেটার ছিলেন। ১৯৬৫-৬৯ তিনি হায়দরাবাদের হয়ে পাঁচটি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ ও খেলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকাকালীন পিআর মান সিং অ্যাডমিনিস্ট্রেশানের হয়ে কাজ শুরু করেন। তখন ওসমানিয়া ইউনিভার্সিটির ক্রিকেটারদের তিনি ম্যাচের দিন ভেন্যুতে যাওয়া আসার দায়িত্বভার নিতেন। 

১৯৭৮ সাল পর্যন্ত তিনি হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারির দায়িত্ব ও পালন করেছিলেন। ১৯৮৩ সালে ভারতীয় দলের ম্যানেজার থাকাটা শুধু নয় কপিল দেবকে অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেওয়ার পিছনেও তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। ১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত তিনি ভারতীয় দলের ম্যানেজার ছিলেন। ইংল্যান্ডে ভারতীয় দলের সাঙ্গে তার অভিজ্ঞতার বিষয় তিনি 'অ্যাগনি অ্যান্ড এস্ট্যাসি' নামক বইতে লিপিবদ্ধ করেছিলেন।

বন্ধ করুন