বাংলা নিউজ > ময়দান > ট্রফি হাতে উইম্বলডনের কোর্টে দাঁড়িয়েই ফেডেরার-নাদালকে কুর্নিশ জকোভিচের, মেনে নিলেন দুই কিংবদন্তির অবদান, দেখুন ভিডিও
উইম্বলডনের ট্রফি হাতে জকোভিচ। ছবি- পিটিআই।
উইম্বলডনের ট্রফি হাতে জকোভিচ। ছবি- পিটিআই।

ট্রফি হাতে উইম্বলডনের কোর্টে দাঁড়িয়েই ফেডেরার-নাদালকে কুর্নিশ জকোভিচের, মেনে নিলেন দুই কিংবদন্তির অবদান, দেখুন ভিডিও

  • উইম্বলডন জয়ের সঙ্গে সঙ্গেই ফেডেরার ও নাদালের সবথেকে বেশি ২০টি করে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেন জকোভিচ।

খেলোয়াড় হিসেবে পরিণত হয়ে উঠতে হলে দরকার শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। ক্রীড়াবিশ্বের এই সহজ দর্শনটা বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। কেরিয়ারের ৬ নম্বর উইম্বলডন জয়ের পর সেই দর্শনটাকেই আরও একবার স্বীকৃতি দিলেন নোভাক জকোভিচ। সেই সঙ্গে একজন খেলোয়াড়কে প্রতিপক্ষ সম্পর্কে কতটা শ্রদ্ধাশীল হতে হয়, সেটাও বুঝিয়ে দিলেন জোকার।

এবার উইম্বলডন জয়ের সঙ্গে সঙ্গেই ফেডেরার ও নাদালের সবথেকে বেশি ২০টি করে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেন জকোভিচ। চ্যাম্পিয়নের ট্রফি হাতে নিয়ে জকোভিচ কোর্টে দাঁড়িয়েই কুর্নিশ জানালেন তাঁর কেরিয়ারের সেরা দুই প্রতিপক্ষকে।

ফেডেরার ও নাদাল প্রসঙ্গে জকোভিচ বলেন, ‘আমি আগেও অনেকবার একথা বলেছি। আমাকে কুর্নিশ জানাতেই হয় রাফায়েল ও রজারকে। ওরা কিংবদন্তি। আমাদের খেলাটার দিগ্গজ। আমার কেরিয়ারে যাদের মুখোমুখি হয়েছি, তাদের মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ দু’জন খেলোয়াড় ওরা।'

জকোভিচ আরও বলেন, ‘আজ আমি যেখানে রয়েছি, তার কারণ ওরা দু’জন। ওরা আমাকে উপলব্ধি করতে সাহায্য করেছে যে, আমাকে শারীরিক, মানসিক ও কৌশলগতভাবে আরও শক্তিশালী হতে হবে।'

উল্লেখ্য, উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়ে তাঁদের ২০টি মেজর জয়ের রেকর্ড ছোঁয়ার পরেই ফেডেরার ও নাদাল সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন নোভাক জকোভিচকে।

বন্ধ করুন