বাংলা নিউজ > ময়দান > উইম্বলডনের সেমিফাইনালে আদৌ খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে 'চিন্তিত' স্বয়ং নাদাল

উইম্বলডনের সেমিফাইনালে আদৌ খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে 'চিন্তিত' স্বয়ং নাদাল

নাদাল (REUTERS)

কোয়ার্টার ফাইনালে টেইলর ফ্রিটজের বিরুদ্ধে ৫ সেটের লড়াইতে জিততে হয়েছে নাদালকে। ৩৬ বছর বয়সি নাদাল তার চোটের কথা গোপন করেননি কখনও। বারবার জানিয়েছেন কীভাবে চোটকে সঙ্গী করেই তিনি কোর্টে লড়াই চালিয়েছেন।

শুভব্রত মুখার্জি: চোটকে সঙ্গী করেই জিতেছিলেন ফরাসি ওপেন। বলা ভালো ইনজেকশন নিয়ে ব্যথা কমিয়ে কমিয়ে অনবদ্য এক লড়াই করে কেরিয়ারের ২২ তম গ্রান্ড স্ল্যাম খেতাব জিতেছিলেন নাদাল। চলতি উইম্বলডনের সেমিফাইনালে ও পৌঁছে গিয়েছিলেন নাদাল। রয়েছেন অনবদ্য ফর্মে। তবে তার মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে তার চোট। এতটাই গুরুতর অবস্থায় পৌঁছেছে তা যে আদৌ উইম্বলডনের সেমিফাইনালে তিনি নামতে পারবেন কি না তা নিয়েই চিন্তিত স্বয়ং নাদাল।

সেমিফাইনালে নাদালের প্রতিপক্ষ নিক কির্গিয়স। কোয়ার্টার ফাইনালে অনবদ্য লড়াই করে ম্যাচ জিতেছেন নাদাল। আর সেই ম্যাচের পরবর্তীতে তার তলপেটে যে চোট ছিল তা আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে নাদাল নিজেই সঙ্কিত তিনি আদৌ সেমিফাইনালে নামতে পারবেন কিনা। কোয়ার্টার ফাইনালে টেইলর ফ্রিটজের বিরুদ্ধে ৫ সেটের লড়াইতে জিততে হয়েছে নাদালকে। ৩৬ বছর বয়সি নাদাল তার চোটের কথা গোপন করেননি কখনও। বারবার জানিয়েছেন কীভাবে চোটকে সঙ্গী করেই তিনি কোর্টে লড়াই চালিয়েছেন।

ফ্রিটজের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ চলাকালীন নাদালের প্রচণ্ড সমস্যা হচ্ছিল। তার পরিবারের সদস্যরা বারবার তাকে ম্যাচ না চালিয়ে যাওয়ার কথা বললেও লড়াই ছাড়েননি নাদাল। ম্যাচ পরবর্তী প্রেস কনফারেন্সে নাদাল জানান ম্যাচ চলাকালীন তার শরীরের চোটের অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। তিনি বলেন 'আমি সত্যি জানি না (আদৌ খেলতে পারব কিনা)। আমাকে বেশ কিছু টেস্ট করাতে হবে। তবে এই মুহূর্তে জানাটা খুব কঠিন। শেষ কয়েকদিন ধরেই আমি এটা অনুভব করতে পারছিলাম। তবে আজকের দিনটা নিঃসন্দেহে খারাপতম দিন ছিল।'

বন্ধ করুন