বাংলা নিউজ > ময়দান > টি-২০ বিশ্বকাপের আগেই শ্রীলঙ্কা বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন টম মুডির
টম মুডি (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার)

টি-২০ বিশ্বকাপের আগেই শ্রীলঙ্কা বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন টম মুডির

  • টাকার অভাবেই কি এই সিদ্ধান্ত, সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে 

অস্ট্রেলিয়াতে টি-২০ বিশ্বকাপ শুরু হতে আর বেশি দেরি নেই। ঠিক তার কয়েক সপ্তাহ আগেই বিশ্বকাপজয়ী অজি অলরাউন্ডার টম মুডির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। উল্লেখ্য দীর্ঘদিন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের ডাইরেক্টর অফ ক্রিকেট পদে ছিলেন টম মুডি। সেই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। শ্রীলঙ্কা বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে দুই পক্ষের পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সমঝোতার ভিত্তিতেই তিন বছরের চুক্তি শেষ হওয়ার আগেই তা ভঙ্গ করেছে দুই পক্ষ।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সেক্রেটারি মোহন ডি সিলভা সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন ৫৬ বছর বয়সি টম মুডির সঙ্গে বোর্ড আলোচনা করার পরে দুই পক্ষ রাজি হওয়াতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের এক সিনিয়র কর্তা জানিয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে টম মুডির প্রফেশনাল ফি দেওয়ার ক্ষমতা বোর্ডের ছিল না। ফলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কা বোর্ডের কোষাগারে রয়েছে ৪০ লক্ষ আমেরিকান ডলার। তারপরেও আর্থিক কারণে কি আদৌও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে? সেটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।

প্রাক্তন অজির সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী তাকে বছরে ১০০ দিন শ্রীলঙ্কাতে কাটাতে হত। সেই সময় তাঁর দায়িত্ব ছিল দ্বীপপুঞ্জের এই রাষ্ট্রের ক্রিকেটের উন্নতি ঘটানো। প্রাক্তন এই অজিকে লঙ্কান বোর্ড প্রতিদিন ১৮৫০ ডলার করে পারিশ্রমিক দেওয়ার পাশাপাশি আলাদা করে খরচ করার টাকাও দিত। প্রসঙ্গত এই মুহূর্তে দেশ হিসেবে শ্রীলঙ্কা কঠিন আর্থিক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আর সেকথা মাথাতে রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বোর্ডের আরেক সূত্র জানিয়েছে বোর্ড এমন কাউকে খুঁজছে যে আরো বেশি সময় শ্রীলঙ্কাতে কাটাতে পারবে ক্রিকেটের উন্নতিকল্পে। এই মাসের শেষেই দেশ ছাড়বেন টম মুডি বলে জানা‌ যাচ্ছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে এই দায়িত্ব নিয়েছিলেন মুডি। তার কাজ ছিল টি-২০ এবং ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য দলকে তৈরি করা। বিষয়টি নিয়ে অবশ্য টম মুডির তরফে কোন বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

বন্ধ করুন