বাংলা নিউজ > ময়দান > দলীপের ফাইনালে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি KKR তারকার, জাতীয় দলে খেলা সময়ের অপেক্ষা, বললেন DK
দলীপের ফাইনালে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি KKR তারকার, জাতীয় দলে খেলা সময়ের অপেক্ষা

দলীপের ফাইনালে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি KKR তারকার, জাতীয় দলে খেলা সময়ের অপেক্ষা, বললেন DK

  • দলীপ ট্রফিতে ফাইনালে দুরন্ত শতরান করার পরে ইন্দ্রজিত সম্বন্ধে নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে দীনেশ কার্তিক টুইট করেন 'ফের একটা উচ্চমানের শতরান। অনবদ্য ক্রিকেটার।

শুভব্রত মুখার্জি: টুইটারে এক ক্রিকেটার সম্পর্কে বড়সড় দাবি করে বসলেন ভারতীয় সিনিয়র দলের কিপার ব্যাটার দীনেশ কার্তিক। তিনি মনে করেন ঘরোয়া ক্রিকেটের এই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের ভারতীয় দলে ডাক পাওয়াটা এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। দীর্ঘদিন ধরে ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে সাফল্যের সঙ্গে খেলছেন বাবা ইন্দ্রজিত। তবে এখন পর্যন্ত তিনি জাতীয় দলে সুযোগ পাননি। বৃহস্পতিবার দলীপ ট্রফির ফাইনালে একটি অনবদ্য শতরান করেছেন অপরাজিত। আর তারপরেই নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বাবা ইন্দ্রজিত সম্বন্ধে এমন ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন ডিকে।

দলীপ ট্রফিতে ফাইনালে দুরন্ত শতরান করার পরে ইন্দ্রজিত সম্বন্ধে নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে দীনেশ কার্তিক টুইট করেন 'ফের একটা উচ্চমানের শতরান। অনবদ্য ক্রিকেটার। টানটান উত্তেজনার দলীপ ট্রফির ফাইনালে এই অনবদ্য শতরান। কি অসাধারণ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পরিসংখ্যান। ভারতীয় দলে ডাক পাওয়া সময়ের অপেক্ষা। খুব ভাল খেলেছে বাবা ইন্দ্রজিত।'

প্রসঙ্গত ইন্দ্রজিত বৃহস্পতিবার ১২৫ বলে ১১৮ রানের একটি ঝকঝকে ইনিংস উপহার দিয়েছেন। ২২ গজে অত্যন্ত ধীরস্থিরভাবে তার ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ বিশেষজ্ঞরা। ২৮ বছর বয়সি ইন্দ্রজিতের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে রেকর্ডও খুব ভালো। ইতিমধ্যেই খেলেছেন ৫৭টি ম্যাচ। ৫২.৯৪ গড়ে করে ফেলেছেন ৩৮৬৫ রানও। ২০১৬'র শুরু থেকে তিনি অসাধারণ ফর্মে রয়েছেন। এই সময়তে ৩৩ ম্যাচে ৬৬'র ও বেশি গড়ে করেছেন ২৫১২ রান। এই সময়কালে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে কোনও ক্রিকেটারের গড় ইন্দ্রজিতের থেকে বেশি নয়। পাশাপাশি তিনি ভাল কিপিংও করতে পারেন। বলা ভালো ভারতীয় সিনিয়র দলে ডাক পাওয়ার মতন কার্যত সমস্ত গুণ রয়েছে তার।

২০২১-২২ রঞ্জি মরশুমে সর্বাধিক রান সংগ্রাহকদের তালিকাতেও প্রথম ১০'এ ছিলেন তিনি। এই মরশুমে তিনি তিন ম্যাচ খেলে করেছিলেন ৩৯৬ রান। পরপর দুই ম্যাচে শতরানও করেছিলেন তিনি। দিল্লির বিরুদ্ধে করেছিলেন ১১৭ এবং ছত্তিশগড়ের বিরুদ্ধে করেছিলেন ১২৭ রান। উল্লেখ্য সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে তামিলনাড়ু দল থেকে বাদ পড়ার পরেই এমন দুরন্ত কামব্যাক ঘটিয়েছেন তিনি। ২০২২ সালের আইপিএলের নিলামে ও তাকে দলে নিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স দল। কেকেআরের হয়ে তিনটি ম্যাচ ও খেলেন তিনি। করেছিলেন মাত্র ২১ রান।

বন্ধ করুন