বাংলা নিউজ > ময়দান > জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য নিজেরাই আবেদন করতে পারবেন
সরকারি বিজ্ঞাপন (ছবি: গুগল)
সরকারি বিজ্ঞাপন (ছবি: গুগল)

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য নিজেরাই আবেদন করতে পারবেন

  • বিভিন্ন সংস্থার সুপারিশের জন্য দরজায় দরজায় গেছেন, তাও কোনও ফল পাননি। তাহলে আর হতাশ হওয়ার কিছু নেই। চলতি বছরে জাতীয় পুরস্কারের জন্য নিজের নাম আপনি নিজেই অনলাইনেই নথিভুক্ত করুন। ২১শে জুন বিকাল ৫টার মধ্যেই নথি জমা দেওয়ার সব কাজ সম্পন্ন করতে হবে। 

আপনি জাতীয় স্তরের একজন ক্রীড়াবীদ। আপনি জাতীয় স্তরে দীর্ঘদিন ধরে দেশকে গর্বিত করেছেন, আপনি জানেন না কী ভাবে জাতীয় স্তরের সর্বোচ্চ পুরস্কার পাওয়া যায়, আপনি অনেকের কাছে ঘুরেছেন, বিভিন্ন সংস্থার সুপারিশের জন্য দরজায় দরজায় গেছেন, তাও কোনও ফল পাননি। তাহলে আর হতাশ হওয়ার কিছু নেই। চলতি বছরে জাতীয় পুরস্কারের জন্য নিজের নাম আপনি নিজেই অনলাইনেই নথিভুক্ত করুন। আর তারপর যদি আপনার সবকিছু ঠিকঠাক থাকে তাহলে সহজেই খেলরত্ন, অর্জুন পুরস্কার, দ্রোণাচার্য পুরস্কারের মতো জাতীয় সম্মান পেয়ে যান।

তবে আপনাকে ২১শে জুন বিকাল ৫টার মধ্যেই নথি জমা দেওয়ার সব কাজ সম্পন্ন করতে হবে। নয়তো আর এ সুযোগ হয়তো আর পাবেননা। যোগাযোগ করুন www.yas.nic.in. ওয়েব সাইটে। ইমেল আইডিও দিয়ে রাখা হল  surendra.yadav@nic.in  or  girnish.kumar@nic.in

সরকারি বিজ্ঞাপন (ছবি: গুগল)
সরকারি বিজ্ঞাপন (ছবি: গুগল)

তবে এটা প্রথম নয় করোনার জন্য গত বারেরও ক্রীড়ামন্ত্রক এই ব্যবস্থা চালু করেছিল। সেবারের মতোই এ বারেও নিজেদের নাম নিজেরাই নথিভুক্ত করতে পারবেন খেলোয়াড়রা। প্রয়োজন নেই জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশনের অনুমতি। আবেদন করা যাবে অনলাইনেই। খেলোয়াড় ও প্রশিক্ষকরা সকলেই আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলিও। 

২১ জুন অবধি আবেদন করা যাবে। মন্ত্রকের তরফে বলা হয়, ‘অতিমারীর এই সময়কে মাথায় রেখে অনলাইনেই আবেদন জমা নেওয়া হবে। গত বার নিজেই নিজের নাম নথিভুক্ত করার নিয়ম আনা হয়েছিল। এ বারেও সেই নিয়ম থাকছে। জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশনও নাম মনোনীত করতে পারবে।’

গত বছর ৭৪ জনকে পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল। বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে পুরস্কারমূল্যও। খেলরত্ন পুরস্কার প্রাপক পাবেন ২৫ লক্ষ টাকা। অর্জুন পুরস্কার প্রাপক পাবেন ১৫ লক্ষ টাকা। যিনি দ্রোণাচার্য পুরস্কার পাবেন তাঁকেও দেওয়া হবে ১৫ লক্ষ টাকা। ধ্যানচাঁদ প্রাপক পাবেন ১০ লক্ষ টাকা। গত বছর খেলরত্ন পেয়েছিলেন রোহিত শর্মা (ক্রিকেটার), রানি রামপাল (হকি খেলোয়াড়), ভিনেশ ফোগত (কুস্তিগীর), মনিকা বাটরা ( টেবিল টেনিস খেলোয়াড়) এবং মরিয়াপ্পন থঙ্গাভেলু (প্যারালিম্পিয়ান)।

রাজীব গান্ধী খেলা রত্ন পুরস্কার পেতে হলে আবেদনকারি ক্রীড়াবীদকে চার বছরের জন্য একটি ক্রীড়া ক্ষেত্রে দর্শনীয় এবং সর্বাধিক অসামান্য ফল দেখাতে হবে। অর্জুন পুরস্কারের জন্য চার বছরের জন্য ধারাবাহিক অসামান্য রেজাল্ট দেখাতে হবে। দ্রোণাচার্য পুরস্কারের সম্মানের জন্য কোচ  হিসাবে  আন্তর্জাতিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিজের ফল দেখাতে হবে এবং খেলাধুলার বিকাশে আজীবন অবদানের জন্য ধ্যানচাঁদ পুরস্কার পাবেন।

বন্ধ করুন