বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘নেতা হওয়ার জন্য অধিনায়ক হতে হয় না;’ নেতৃত্ব নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট কোহলি
নেতৃত্ব নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট কোহলি (ছবি:রয়টার্স)

‘নেতা হওয়ার জন্য অধিনায়ক হতে হয় না;’ নেতৃত্ব নিয়ে মুখ খুললেন বিরাট কোহলি

  • কোহলি এবার তাঁর অধিনায়কত্ব নিয়ে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিস্কার করলেন। একটি অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব নিয়ে নিজের মনের কথা জানান বিরাট কোহলি।

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে ভারত ৬৮টি টেস্ট ম্যাচের মধ্যে ৪০টি টেস্ট জিতেছে। অস্ট্রেলিয়ায় ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জয়ের সঙ্গেই কোহলির নেতৃত্বে ভারত টেস্ট ব়্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর দলও হয়েছিল। টি-২০ বিশ্বকাপের পরেই কোহলি টি-২০ দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন। আর এর ঠিক পরেই বিসিসিআই কোহলিকে ওয়ানডের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়। তারপর কোহলি নিজেই টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেন। কোহলি এবার তাঁর অধিনায়কত্ব নিয়ে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিস্কার করলেন। ফায়ারসাইড চ্যাট অনুষ্ঠানে নিজের মনের কথা জানান বিরাট কোহলি। 

বিরাট বলেন, ‘দেখুন, প্রথমে এটা খুব ভালো করে বুঝে নিতে হবে যে, আমি কী অর্জন করতে চাইছি। সেই টার্গেট পূরণ করতে পেরেছি কী পারিনি! সব কিছুর একটা মেয়াদ এবং সময় থাকে। সেই ব্যাপারে অবগত থাকতে হবে। একজন ব্যাটার হিসাবে আমি দলে আরও বেশি কিছু দিতে পারি। সেটা নিয়ে গর্ব করা যায়। নেতা হওয়ার জন্য অধিনায়ক হতে হয় না।’ ধোনি নিয়ে বলতে গিয়ে বিরাট বলেন, ‘এমএস ধোনি যখন দলে ছিলেন তখন এরকম নয় যে, সে নেতা ছিল না। সে এমন একজন ছিল যাকে আমরা ইনপুট দিতে পারতাম।’ 

লাল বলের ক্রিকেটে ভারতের সফলতম টেস্ট অধিনায়ক হিসাবে নিজের নাম ইতিহাসে লিখিয়ে নিয়েছেন বিরাট। তার নেতৃত্ব প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে কোহলি আরও বলেন, ‘আমি আরেকটা বিষয় যোগ করতে চাই। ঠিক সময়ে সরে আসাটাও নেতৃত্বের অংশ। আমার মনে হয় একজনের সকল ভূমিকা ও দায়িত্ব সাদরে গ্রহণ করা উচিত। আমি এমএস ধোনির নেতৃত্বে খেলেছি। এরপর অধিনায়ক হই। কিন্তু আমি সবসময় একজন অধিনায়কের মতোই ভেবেছি। আমি যখন ক্যাপ্টেন হই, তখন আমার ফোকাস ছিল দলের সংস্কৃতি বদলের ওপর। আমি জানতাম আমাদের দক্ষতার কোনও অভাব নেই।’

বন্ধ করুন