বাংলা নিউজ > ময়দান > ZIM vs BAN: ১৫০ করেই টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায়, মাহমুদউল্লাহকে দেওয়া হলো 'গার্ড অব অনার'
মাহমুদউল্লাহকে দেওয়া হলো 'গার্ড অব অনার' (ছবি:টুইটার)
মাহমুদউল্লাহকে দেওয়া হলো 'গার্ড অব অনার' (ছবি:টুইটার)

ZIM vs BAN: ১৫০ করেই টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায়, মাহমুদউল্লাহকে দেওয়া হলো 'গার্ড অব অনার'

  • আজ রবিবার হারারে টেস্টের পঞ্চম তথা শেষ দিনে শেষ হল সব গুঞ্জন। 

আজ রবিবার হারারে টেস্টের পঞ্চম তথা শেষ দিনে শেষ হল সব গুঞ্জন। সকল অনুমানকে সত্যি করে আজই টেস্ট ক্রিকেট থেকে মাহমুদউল্লাহর অবসর নিচ্ছেন। বিষয়টা নিশ্চিত হয়ে গেল দিনের শুরুতেই।

জিম্বাবোয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে আজকের খেলা শুরু হলো আর সব দিনের চেয়ে একটু ভিন্নভাবে। বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা মাঠে নেমে দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়ালেন। সতীর্থদের করতালিতে মাঠে ঢুকলেন মাহমুদউল্লাহ। জিম্বাবোয়ের বিপক্ষে হারারে টেস্টের শেষ দিনটাই হয়ে গেল অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের ক্যারিয়ারের শেষ দিন। টেস্টের তৃতীয় দিনেই সতীর্থদের কাছে নিজের ইচ্ছের কথা জানিয়েছেন বলে গুঞ্জন উঠে ছিল। এবার 'গার্ড অব অনার' দেওয়ায় সেই গুঞ্জনের সত্যতা নিয়ে আর সন্দেহ রইল না।

এই ম্যাচ দিয়েই প্রায় দেড় বছর পর তিনি ফেরেন টেস্ট ক্রিকেটে। ফিরেই খেলেন ১৫০ রানের অসাধারণ ইনিংস। বলা হচ্ছিল তার টেস্ট ক্যারিয়ারের পুনর্জন্ম। অথচ এই ম্যাচ দিয়েই ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার সাদা পোশাককে পাকাপাকিভাবে বিদায় জানিয়ে দিলেন। ২০০৯ সালে টেস্টে অভিষিক্ত মাহমুদউল্লাহর ৫০তম টেস্টই হয়ে রইল তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট। যিনি মহাবিপদে দলের হাল ধরেছেন, আজ তাকেই সসম্মানে বিদায় জানালেন সতীর্থরা।

জিম্বাবোয়ে সফরের টেস্ট দলেও ছিলেন না রিয়াদ। মূল দল ঘোষণার ২ দিন পর অন্তর্ভুক্ত করা হয় তাঁকে। হারারে টেস্টে একাদশে সুযোগ পেয়ে মাহমুদউল্লাহ হয়ে ওঠেন ব্যাটিং অর্ডারের ত্রাতা। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দল পড়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে। ৮ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে রিয়াদ খেলেন ১৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস। তাসকিন আহমেদের সঙ্গে ৯ম উইকেটে ১৯১ রানের রেকর্ড গড়েন।, যা দলকে এনে দেয় ৪৬৮ রানের পুঁজি। অবসরের আগে পর্যন্ত ৫০টি টেস্টে মাঠে নামা হয়েছে রিয়াদের, আছে ৫টি সেঞ্চুরি ও ১৬টি অর্ধশতরান। ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট হাতে নামা হয়নি তাঁর। তাই ১৫০ রানে অপরাজিত থেকেই শেষ করলেন টেস্ট ক্যারিয়ার।

বন্ধ করুন