বাংলা নিউজ > টেকটক > চাঁদকে ট্রাফিক সিগন্যাল ভেবে ফেলল টেসলার অটোপাইলট! ভাইরাল ভিডিয়ো
ছবি : টুইটার  (Twitter)
ছবি : টুইটার  (Twitter)

চাঁদকে ট্রাফিক সিগন্যাল ভেবে ফেলল টেসলার অটোপাইলট! ভাইরাল ভিডিয়ো

  • তবে এই প্রথম যে এমনটা হল, তা কিন্তু নয়। এর আগে চাঁদ এমনকি সূর্যাস্তের দিগন্তের সূর্যকে দেখেও ট্রাফিক সিগন্যালের সঙ্গে গুলিয়ে ফেলেছে টেসলার অটোপাইলট।

ইলন মাস্কের টেসলার বৈদ্যুতিক গাড়ি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বেশ জনপ্রিয়। পরিবেশ-বান্ধব হওয়ার পাশাপাশি ফিচারে ঠাসা টেসলার গাড়ি। বিশেষত অটোপাইলট, অটো-পার্কিংয়ের মতো ফিচারগুলি এই রেঞ্জের গাড়িতে ভাবাই যায় না।

কিন্তু এই টেসলাতেও রয়েছে বেশ কিছু বাগ। আর সেগুলিই মাঝে মাঝে ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তেমনই এক ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে আবারও। চাঁদকে ট্রাফিক সিগন্যালের আলো ভেবে বসেছে টেসলার অটোপাইলট। আর তাতেই বিপত্তি।

আজ্ঞে হ্যাঁ। চাঁদের গাঢ় হলদেটে কমলা বর্ণকে ট্রাফিক সিগন্যালের আলো ভেবে নিয়েছে এআই। আর তার ফলেই শুরু শমস্যা। যতই ওই ব্যক্তি স্পিড বাড়াতে চান, ততই স্পিড কমিয়ে আনে তাঁর গাড়ি। পুরো ঘটনাটার ভিডিয়ো করেছেন তিনি। টুইটারে পোস্ট করতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। দেখুন সেই ভিডিয়ো :

তবে এই প্রথম যে এমনটা হল, তা কিন্তু নয়। এর আগে চাঁদ এমনকি সূর্যাস্তের দিগন্তের সূর্যকে দেখেও ট্রাফিক সিগন্যালের সঙ্গে গুলিয়ে ফেলেছে টেসলার অটোপাইলট। নিজের অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন অপর এক টেসলা চালক।

কিন্তু এর সুরাহা কী? কমেন্টে অনেকে বলেছেন, কোনও সময়ে সূর্য বা চাঁদের অবস্থানের বিষয়ে যদি আলাদা করে অটোপাইলটের কাছে ডেটা থাকে তবে এই সমস্যা হবে না। আবার অনেকের মতো এটা বেশি জটিল হয়ে যাবে। ট্রাফিক সিগন্যালের পাশে যে ধাতব কেসিং থাকে, সেটি রেকগনাইজড হলে এই সমস্যা হবে না বলে মত তাঁদের। কিন্তু রাতে সেই ফিচার কীভাবে কাজ করবে তা বলতে পারছেন না কেউই।

আপনার কী মনে হয়? এই সমস্যার সুরাহা কীভাবে হতে পারে?

বন্ধ করুন