বাংলা নিউজ > টেকটক > স্পেস স্টেশনের গাছে ঝাল লঙ্কা! রুটি দিয়ে মেখে খেলেন নভোশ্চররা
মহাকাশে খাওয়াদাওয়া! ছবি : টুইটার (Twitter)
মহাকাশে খাওয়াদাওয়া! ছবি : টুইটার (Twitter)

স্পেস স্টেশনের গাছে ঝাল লঙ্কা! রুটি দিয়ে মেখে খেলেন নভোশ্চররা

  • নাসার মহাকাশচারী মেঘান ম্যাকআর্থার সেই প্রথম ফলন এবং পেটপুজোর আয়োজনের ছবি শেয়ার করেন। মজার ছলে তিনি এটির নাম দেন 'স্পেস টাকো'।

গত চার মাস ধরে মহাকাশে বেড়েছে লঙ্কার গাছ। শেষ পর্যন্ত সেই গাছের প্রথম লঙ্কার স্বাদ পেলেন আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে থাকা নাসার মহাকাশচারীরা।

কিন্তু লঙ্কা তো আর এমনি এমনি খাওয়া যায় না! তাই প্রথম ফলনের লঙ্কা দিয়ে সুস্বাদু পদ বানিয়ে ফেলেন তাঁরা। ভুট্টার রুটির মধ্যে মুড়ে নেন বিফ ফাহিতা, টম্যাটো, আর্টিচোক। তার উপর টাটকা লঙ্কা কুচি। মুখে দিতেই ঝালঝাল স্বাদ ও গন্ধে ভারী মজা। মহাকাশে বানানো টাকো বলে কথা! টাকো হল এক ধরণের মেক্সিকান খাবার। ভুট্টার রুটির মধ্যে মাংস বা মাছের পুর, পেঁয়াজ, লঙ্কা, ধনে পাতা কুচি ও সস দেওয়া হয়। খেতে অনেকটা আমাদের চিকেন রোলের মতোই, তবে অনেক বেশি নরম।

নাসার মহাকাশচারী মেঘান ম্যাকআর্থার সেই প্রথম ফলন এবং পেটপুজোর আয়োজনের ছবি শেয়ার করেন। মজার ছলে তিনি এটির নাম দেন 'স্পেস টাকো'।

স্পেস স্টেশনের গবেষণার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকেও গাছে হওয়া লঙ্কা এবং তার ফুলের ছবি শেয়ার করা হয়। 'হ্যাচ চিলি' প্রজাতির লঙ্কা ফলানো হয়েছে। নিউ মেক্সিকোর হ্যাচ ভ্যালি এলাকায় এর চাষ হয়। সেই কারণেই এই নামকরণ। বিভিন্ন মেক্সিকান রান্নায় এটি ব্যবহৃত হয়।

মহাকাশে গাছ করা সহজ নয়!

ভাল করে খেয়াল করলে দেখা যাবে, পৃথিবীতে গাছের ফলনের অনেক কিছুর সঙ্গেই মাধ্যাকর্ষণের প্রভাব জড়িত। শিকড়ের প্রসার, গাছের বৃদ্ধি, জল গ্রহণ, ফলনের সময়ে বোঁটার ধরণ ইত্যাদি সবেতেই এই প্রভাব রয়েছে। মহাকাশে ভারশূন্য অবস্থায় উদ্ভিদের প্রভাব পর্যবেক্ষণ তাই গবেষণার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া ভারশূন্য অবস্থায় শিকড় নিচের দিকে রাখা, গাছকে এক জায়গায় স্থির রাখা, কোষের স্বাভাবিক বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করাও বেশ চ্যালেঞ্জিং।

পাশাপাশি রয়েছে আরও এক উদ্দেশ্যও

আগামিদিনে আরও বেশি সময় ধরে মহাকাশে স্পেস স্টেশনে থাকবেন নভোশ্চররা। এছাড়া মঙ্গল অভিযানের মতো ক্ষেত্রেও কয়েক বছরের খাবার বহন করা কঠিন বিষয়। সেই সঙ্গে গাছের টাটকা খাবারের খাদ্যগুণ ও স্বাদের সঙ্গে সংরক্ষিত খাবারের তুলনাই হয় না। দীর্ঘমেয়াদে মহাকাশে চাষাবাদ করার বিষয়ে তাই ভাবছেন বিজ্ঞানীরা। চাহিদার একটা সামান্য অংশও যদি ফলানো যায়, তাতেই বা মন্দ কি!

এই এক্সপেরিমেন্টে লঙ্কা ফলানোর কারণ

লঙ্কায় বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিগুণ রয়েছে। এটি ভিটামিন সি-র ভাল উৎস৷ লঙ্কা স্ব-পরাগায়নকারী। এর ফলে ফলন আনা সহজ৷ তাছাড়া, মরিচ মহাকাশচারীদের ডায়েটে সুস্বাদু বৈচিত্র্য আনে৷

কীভাবে ফলানো হল?

৪৮টি লঙ্কার বীজ স্যানিটাইজ এবং রোপণ করা হয়। সায়েন্স ক্যারিয়ার নামে এক বিশেষ ধরণের 'টবে' এই গাছ করা হয়। এতে শিকড় বৃদ্ধির জন্য বেকড কাদামাটি ছিল। সেই সঙ্গে লঙ্কার ফলনের জন্য বিশেষভাবে তৈরি স্লো রিলিজ সার ছিল।

তবে এই প্রথম নয়

২০১৫ সাল থেকে, মহাকাশচারীরা মহাকাশ স্টেশনে ১০টি ভিন্ন ফসল ফলিয়েছেন এবং খেয়েছেন।

বন্ধ করুন