বাংলা নিউজ > টেকটক > Elon Musk Fake Pee Tweet: নিজের মূত্র পান করতে বলে টুইট ‘ইলন মাস্কে’র? সাসপেন্ড হল অ্যাকাউন্ট! হচ্ছেটা কী…

Elon Musk Fake Pee Tweet: নিজের মূত্র পান করতে বলে টুইট ‘ইলন মাস্কে’র? সাসপেন্ড হল অ্যাকাউন্ট! হচ্ছেটা কী…

ইলন মাস্কের নামে ভুয়ো টুইট করে সাসপেন্ড ‘ভেরিফায়েড’ অ্যাকাউন্ট। 

ইলন মাস্কের নামে ভুয়ো টুইট করে সাসপেন্ড ‘ভেরিফায়েড’ অ্যাকাউন্ট।

টুইটার অধিগ্রহণের আগের থেকেই বাকস্বাধীনতা নিয়ে সরব হয়েছিলেন ইলন মাস্ক। তবে সেই বাকস্বাধীনতার জেরেই এবার চরম অস্বস্তিতে পড়লেন নয়া টুইট কর্তা। প্রাক্তন আমেরিকান ফুটবলার ক্রিস ক্লুওয়ে নিজের অ্যাকাউন্টের নাম ‘ইলন মাস্ক’ করে তা থেকে নিজের মূত্র পান করার বার্তা দিয়ে টুইট করেছিলেন। এরপরই তাঁর ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করা হয়।

ক্রিস ওয়ারক্রাফ্ট নামক অ্যাকাউন্টটির নাম বদল করে ‘ইলন মাস্ক’ করা হয়েছিল। পাশাপাশি অ্যাকাউন্টের ছবিতেও মাস্কের ছোটবেলার ছবি ব্যবহার করা হয়েছিল। ইলন মাস্কের আসল অ্যাকাউন্টেও এখন সেই ছবি রয়েছে। এহেন অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে লেখা হয়, ‘জেগে ওঠার পর নিজের তাজা, গরম প্রস্রাব পান করার থেকে ভালো কিছু হতে পারে না। দিন শুরু করার জন্য এটা ভালো উপায়। এটি মস্তিষ্কের কোষগুলিকে বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। তা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত। আপনি যদি আমার মত হতে চান, আপনিও নিজের প্রস্রাব পান করুন।’

এই বিতর্কিত টুইটের পরই অনেকে মনে করেন যে টুইটটি আদতে মাস্কের করা। পরে অবশ্য আসল বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। এদিকে ক্রিসের অ্যাকাউন্টটি সাসপেন্ড করে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, ক্রিসের অ্যাকাউন্ট ছাড়াও আরও এখটি ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘ইলন মাস্কে’র নাম ভাঁড়ায়। সেই অ্যাকাউন্টটিকেও সাসপেন্ড করা হয়। প্রসঙ্গত, টুইটার অধিগ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই কয়েক হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করায় বিতর্কে জড়িয়েছেন ইলন মাস্ক। যদিও মাস্ক এই সিদ্ধান্তকে ব্যবসায়িক লেন্সে দেখতে চাইছেন। অপরদিকে ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে ব্লু টিকের জন্য মাসিক ৮ ডলার ‘ভাড়া’ ঘোষণা করায় মাস্কের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন অনেকে। অনেকেই টুইটার ছাড়তেও শুরু করেছেন।

বন্ধ করুন