বাংলা নিউজ > টেকটক > ভারতের বাজারে নজর? ২ বছরের মধ্যেই সস্তার ইলেকট্রিক গাড়ি আনতে পারে Tesla!
শিল্পীর কল্পনায় টেসলা মডেল টু। ছবি : ইনস্টাগ্রাম  (Instagram )
শিল্পীর কল্পনায় টেসলা মডেল টু। ছবি : ইনস্টাগ্রাম  (Instagram )

ভারতের বাজারে নজর? ২ বছরের মধ্যেই সস্তার ইলেকট্রিক গাড়ি আনতে পারে Tesla!

টেসলার বর্তমান গাড়িগুলি ভারতে বিএমডব্লিউ, মার্সিডিজ, অডি, জ্যাগুয়ারের মতো নামী লাক্সারি কারের সেগমেন্টে পড়ে যাবে।

সাইবারট্রাক এবং রোডস্টারের অফিসিয়াল লঞ্চ পিছিয়ে দিয়েছে টেসলা। তারই মধ্যে আরও এক নয়া প্রোজেক্ট। ২০২৩ নাগাদ সস্তার ইলেকট্রিক গাড়ি লঞ্চের পরিকল্পনা করছে টেসলা। ২৫ হাজার মার্কিন ডলারের এই গাড়ির পরিকল্পনা আগেই জানিয়েছিলেন কর্ণধার ইলন মাস্ক। ইভি-সংক্রান্ত পোর্টাল ইলেক্ট্রেক-এর এক রিপোর্টে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে চমকের জায়গাটা অন্য। টেসলার এই গাড়িতে স্টিয়ারিং হুইল নাও থাকতে পারে বলে জানা গিয়েছে। টেসলার ২৫ হাজার ডলারের এই বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির ঘোষণা গত বছরই করা হয়েছিল। সিইও ইলন মাস্ক জানান, এটি সম্পূর্ণ স্বয়ংচালিত হবে। মাস্ক আরও জানান, এর জন্য নয়া ব্যাটারি সেল উত্পাদনের কাজ করছে টেসলা। এই নয়া ব্যাটারি সেল ব্যবহার করলে প্রায় ৫০% কম খরচ হবে।

এই নতুন গাড়ির নাম এখনও ঘোষণা করেনি সংস্থা। তবে মনে করা হচ্ছে, এটির নাম টেসলা মডেল টু (Tesla Model 2) রাখা হতে পারে।

অনেকেই মনে করছেন, সম্প্রতি টেসলার যে হ্যাচব্যাকের কথা শোনা যাচ্ছিল, সেটিই এই গাড়ি। এছাড়া টেসলা সম্প্রতি ভারতে প্রবেশের ছাড়পত্রও পেয়েছে। সবুজ সংকেত পেয়েছে ৪টি মডেল। ফলে আগামিদিনে ভারতের বাজার ধরতে, সস্তার মডেলে মনোনিবেশ করছে সংস্থা।

২৫ হাজার মার্কিন ডলার মানে ১৮ লক্ষ ভারতীয় মুদ্রার আশেপাশে। রপ্তানি কর, অ্যাসেম্বেলি ও অন্যান্য বিভিন্ন খরচ মিলিয়ে তা যদি ২৫-৩০ লক্ষেরও আশেপাশে হয়, ভারতে তা তুলনায় বেশি বিক্রি হবে। নয় তো টেসলার অন্যান্য গাড়িগুলির দাম আরও বেশি। সেই দামে মার্কিন মুলুকে, ইউরোপে বিক্রি হতে পারে। তবে ভারতে তা বিএমডব্লিউ, মার্সিডিজ, অডি, জ্যাগুয়ারের মতো নামী লাক্সারি কারের সেগমেন্টে পড়ে যাবে। আর সেই দামে টেসলা সমপরিমাণ সুবিধা দিলেও, ক্রেতারা ব্যাজ ভ্যালু এবং লুকস-এ গুরুত্ব দেবেন। সে ক্ষেত্রে ভারতের বাজারে দামি গাড়ি নিয়ে সুবিধা করা মুশকিল হয়ে যাবে টেসলার পক্ষে।

বন্ধ করুন