বাংলা নিউজ > টেকটক > মেসেজে কোনও লিঙ্ক এসেছে? ভুলেও ক্লিক করবেন না! সতর্ক করে দিল কেন্দ্র

মেসেজে কোনও লিঙ্ক এসেছে? ভুলেও ক্লিক করবেন না! সতর্ক করে দিল কেন্দ্র

এমন লিঙ্ক থেকে সাবধান। ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা (HT Bangla)

লিঙ্কগুলি ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন অজানা চিনা ওয়েবসাইটে নিয়ে যাচ্ছে। এমনিতে দেখে বোঝার উপায় নেই। হুবহু আমাজন বা ফ্লিপকার্টের মতো জনপ্রিয় ই-কমার্স সংস্থার ওয়েবসাইটের ক্লোন করে সেই সাইটগুলি বানানো। ফলে বিনা সন্দেহে সেখানে ভুল করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিবরণ, পাসওয়ার্ড এবং OTP দিলেই বারোটা বেজে যাবে।

উৎসবের মরসুমে অনলাইন লেনদেন বাড়ে। আর সেই সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে প্রতারণার ঘটনা বৃদ্ধি পায়। অনলাইনে কেনাকাটা করার সময়ে তাই অতিরিক্ত সাবধান থাকা প্রয়োজন। বিশেষত উপহার এবং পুরস্কারের প্রতিশ্রুতি দেখলেই সাবধান। এমনটিই বলছে কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞ দল। 

CERT-In-এর সতর্কতাবাণী

ইন্ডিয়ান কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম (CERT-In) এই বিষয়ে সকলকে সতর্ক করেছে। কেন্দ্রীয় সংস্থার বিশেষজ্ঞদের কথায়, স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ফেক মেসেজের মাধ্যমে টার্গেট করা হচ্ছে। উৎসবের সময়ে দিওয়ালি অফার বলে দাবি করে নানা মেসেজ পাঠানো হচ্ছে। কখনও ই-কমার্স সংস্থা, কখনও বা ব্যাঙ্কের ওয়েবসাইটের নকলে লিঙ্ক বানিয়ে পাঠানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, সেই লিঙ্কে গিয়ে পুরস্কার সংগ্রহ করা যাবে। এদিকে আসলে এই লিঙ্কগুলি ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন অজানা চিনা ওয়েবসাইটে নিয়ে যাচ্ছে। এমনিতে দেখে বোঝার উপায় নেই। হুবহু আমাজন বা ফ্লিপকার্টের মতো জনপ্রিয় ই-কমার্স সংস্থার ওয়েবসাইটের ক্লোন করে সেই সাইটগুলি বানানো। ফলে বিনা সন্দেহে সেখানে ভুল করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের বিবরণ, পাসওয়ার্ড এবং OTP দিলেই আপনার বারোটা বেজে যাবে। আরও পড়ুন: SOVA: নতুন মোবাইল ব্যাঙ্কিং ভাইরাসের বিষয়ে সতর্ক করল কেন্দ্র

কী করবেন না

  • কোনও অচেনা, সন্দেহজনক লিঙ্কে কখনই টাচ করবেন না।
  • কোনও লিঙ্ক পাঠিয়ে সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে বললে করবেন না।
  • ব্যাঙ্ক, কোনও সংস্থা, ই-কমার্সের সাইটের মতো দেখতে মনে হলেও সেটা কোনও ভুয়ো লিঙ্ক হতে পারে। তাই এ বিষয়ে সতর্ক থাকুন।

কী করবেন

  • ভুয়ো লিঙ্ক আসলে সঙ্গে সঙ্গে প্রেরণকারীকে সতর্ক করুন।
  • প্রেরণকারী যদি আরও কাউকে এই মেসেজ পাঠিয়ে থাকেন, তাঁদের সতর্ক করতে বলুন।
  • ভুল করে কোনও লিঙ্কে ক্লিক করে থাকলে সাবধান। আপনার ফোনে ব্যাকগ্রাউন্ডে কোনও অ্যাপ চলছে কিনা দেখুন।
  • পাসওয়ার্ডগুলি বদলে ফেলুন।

আরও পড়ুন: WhatsApp Fake News: এবার থেকে WhatsApp-এ সবার মেসেজ দেখবে মোদী সরকার? জানুন আসল সত্য

'বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে (হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি) জাল মেসেজের প্রচলন রয়েছে। এগুলি মিথ্যা ফেসটিভ অফার দেওয়ার দাবি করে। ব্যবহারকারীদের উপহার এবং পুরস্কারের লিঙ্কে ক্লিক করতে প্রলুব্ধ করা হচ্ছে,' বলছে CERT-In। ফলে বর্তমান সময়ের প্রেক্ষিতে কেন্দ্রের এই ১৮ অক্টোবরের পরামর্শগুলি সবার মাথায় রাখা প্রয়োজন। শুধু উত্সবের সময়টুকুই নয়। সারা বছরই এই পরামর্শগুলি প্রযোজ্য। অচেনা-অজানা লিঙ্কে, বিশেষজ্ঞ অফার, গিফট, লটারির মতো কথা বলা হলে সেগুলি ভুলেও খুলবেন না।

মহিলাদের বেশি করে ‘টার্গেট’ করা হচ্ছে

CERT-In জানিয়েছে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মহিলাদের টার্গেট করা হচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপ/ টেলিগ্রাম/ ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পরিচিতদের সঙ্গে লিঙ্কগুলিও ভাগ করতে বলা হচ্ছে। 

মানে ধরুন কোনও নামী প্রসাধনী সংস্থার নাম করে কোনও লিঙ্ক পাঠানো হয়েছে। তাতে বলা হচ্ছে, দিওয়ালিতে সংস্থার প্রচারের অংশ হিসাবে নির্দিষ্ট কিছু গ্রাহককে বিনামূল্যে স্যাম্পেল দেওয়া হবে। এর জন্য ১০ জনকে এই মেসেজটি ফরোয়ার্ড করতে হবে এবং লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে।

CERT-In ব্যবহারকারীদের অজানা ওয়েবসাইট ব্রাউজ করার বিষয়ে সাবধান করে দিয়েছে। একইসঙ্গে অচেনা লিঙ্কে ক্লিক করা এড়িয়ে যেতেও বলা হয়েছে নির্দেশিকায়।

বন্ধ করুন