বাংলা নিউজ > টেকটক > প্রতিযোগিতা কমিশনের জরিমানার জের, Google Play বিলিং সিস্টেমে এল বদল

প্রতিযোগিতা কমিশনের জরিমানার জের, Google Play বিলিং সিস্টেমে এল বদল

 ফাইল ছবি : রয়টার্স  (Reuters)

গুগল জানিয়েছে, CCI-এর সাম্প্রতিক রায়ের পর, আমরা ভারতে ব্যবহারকারীদের ডিজিটাল পণ্য ও পরিষেবা কেনার সময়ে লেনদেনের জন্য ডেভেলপারদের উপর আবশ্যিক Google Play-এর বিলিং সিস্টেম ব্যবহার করার নিয়ম স্থগিত করছি। আপাতত আমাদের আইনি বিকল্প পর্যালোচনা করা হচ্ছে।

স্থগিত অ্যাপ-মধ্যস্থ লেনদেনে Google Play বিলিং সিস্টেম লাগু করার নিয়ম। ভারতের প্রতিযোগিতা কমিশনের জরিমানা আরোপের পরেই এই সিদ্ধান্ত গুগলের।

গুগল জানিয়েছে, CCI-এর সাম্প্রতিক রায়ের পর, আমরা ভারতে ব্যবহারকারীদের ডিজিটাল পণ্য ও পরিষেবা কেনার সময়ে লেনদেনের জন্য ডেভেলপারদের উপর আবশ্যিক Google Play-এর বিলিং সিস্টেম ব্যবহার করার নিয়ম স্থগিত করছি। আপাতত আমাদের আইনি বিকল্প পর্যালোচনা করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহে ভারতের প্রতিযোগিতা কমিশন (সিসিআই) Google-এর উপর ৯৩৬.৪৪ কোটি টাকা জরিমানা আরোপ করে। নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে অনায্য ব্যবসায়িক আচরণ পরিবর্তনেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ঠিক কী করেছিল গুগল?

ভারতে Google তার অ্যান্ড্রয়েজ অপারেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে এই বাজারে একচেটিয়া প্রভাব বজায় রেথেছে।

CCI তার মূল্যায়নের ভিত্তিতে জানিয়েছে, Android OS-এর জন্য অ্যাপ স্টোরের বাজারে Google অত্যন্ত বেশি প্রভাবশালী।

বলা হয়েছে যে, অ্যাপ ডেভেলপারদের কাছে তাদের সৃষ্টি/উদ্ভাবন থেকে আয় করার জন্য অ্যাপের মাধ্যমে ডিজিটাল পণ্য বিক্রি করা একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। এদিকে, এই অ্যাপ-মধ্যস্থ ডিজিটাল পণ্য বিক্রির ক্ষেত্রেই নিজের প্রভাব খাটায় গুগল। অ্যাপে কিছু কেনার সময়ে ব্যবহারকারী যাতে গুগলের টাকা লেনদেনের সিস্টেমের মাধ্যমেই পেমেন্ট করেন, সেটা নিশ্চিত করতে হত ডেভেলপারদের। অর্থাত্ প্লে স্টোরে জায়গা পেতে অ্যাপে গুগল-এর পেমেন্ট চ্যানেল রাখতে হত। Google Play-এর বিলিং সিস্টেম (GPBS) ব্যবহার করতে হবে তাঁদের। অন্য কোনও মাধ্যম ব্যবহার করা যাবে না।

অ্যাপ ডেভেলপাররা যদি GPBS ব্যবহার করার এই নিয়ম না মানেন, তাহলে তাঁদের প্লে স্টোরে অ্যাপ তালিকাভুক্ত করার অনুমতি দেওয়া হয় না। আর এইটুকুর কারণেই সেই অ্যাপ ডেভলপার সারা বিশ্বের Android ব্যবহারকারীদের কাছে আর পৌঁছতে পারবে না। পেইড অ্যাপ এবং অ্যাপ-মধ্যস্থ কেনাকাটার জন্য GPBS-এর বাধ্যতামূলক ব্যবহারের উপরেই Play Store-এ স্থান পাওয়া নির্ভর করছে। আর CCI-এর মতে, এটিই একচেটিয়া এবং স্বেচ্ছাচারী বাজার প্রবণতার সামিল। অ্যাপ ডেভলপারদের তাঁদের পছন্দের অন্য যে কোনও পেমেন্ট প্রসেসর ব্যবহার করতে পারার ক্ষমতা থাকা উচিত্। একটি খোলা বাজারের সংজ্ঞা সেটাই।

CCI প্লে স্টোরে পেমেন্টের অপশন হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বী UPI অ্যাপদের বাদ দেওয়ার অভিযোগেরও পরীক্ষা করেছে। সেই তদন্তে পাওয়া গিয়েছে যে, Google Pay-তে গুগল তার গুগল পে-এর মাধ্যমে পেমেন্টকেই বেশি প্রাধান্য দিয়েছে। সেটি ইনটেন্ট ফ্লো প্রযুক্তিতে সামিল করা হয়েছে। এদিকে বাকি ইউপিআই অ্যাপদের কালেক্ট ফ্লো মেথডে যোগ করা হয়েছে। সহজ ভাষায়, প্লে স্টোরে কিছু কিনতে গেলে আপনার গুগল পে ব্যবহার করতেই বেশি সুবিধা হবে। আর সেটাও যে একচেটিয়া ব্যবসায়িক প্রবণতা, তা বলাই বাহুল্য। এই বিষয়ে আর্থিক তথ্য ও সংশোধনমূলক পদক্ষেপের আপডেট জিতে গুগল কর্তৃপক্ষকে আগামী ৩০ দিনের সময় দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন