বাংলা নিউজ > টেকটক > সাধ্যের মধ্যে অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার! ভারতে এল নতুন Honda CB 200X
ছবি : হোন্ডা  (Honda)

সাধ্যের মধ্যে অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার! ভারতে এল নতুন Honda CB 200X

  • ভারতে এন্ট্রি লেভেল অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার বলতে KTM 250 Adventure । ফলে এই শূন্যস্থানটাই পূরণ করল Honda ।

আগেই তার দেখা মিলেছিল। বিভিন্ন অটো এক্সপো-তে NX200 নামের একটি অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার দেখিয়েছে Honda । অবশেষে সেটাই এল ভারতের বাজারে। CB 200X নামে ভারতের বাজারে প্রবেশ করল হোন্ডার নতুন মোটরসাইকেল।

ভারতে অ্যাডভেঞ্চার-ট্যুরার

অনেকেই মোটরসাইকেলে লম্বা পথ পাড়ি দিতে পছন্দ করেন। আর সেই লম্বা পথের পুরোটাই যে মসৃণ হবে, তার কোনও মানে নেই। কিছুটা পাথুরে, কিছুটা মেঠো পথ পার করে এগিয়ে যাওয়া। এই কনসেপ্ট থেকেই অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরারের জন্ম।

তবে সমস্যা একটাই। এই অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরারের দাম হয় মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে। ভারতে এন্ট্রি লেভেল অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার বলতে KTM 250 Adventure ।

ফলে এই শূন্যস্থানটাই পূরণ করল Honda ।

ডিজাইন

ছবি : হোন্ডা 
ছবি : হোন্ডা  (Honda)

ডিজাইনে Honda-র নেকড বাইক হরনেটের ছাপ স্পষ্ট। বলা যেতে পারে, হরনেটের বেসের উপর ভিত্তি করেই অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরিংয়ের উপযোগী করে তোলা হয়েছে CB 200X-কে।

হাইওয়েতে হাওয়ার ধাক্কা কাটাতে দেওয়া হয়েছে বড় উইন্ড স্ক্রিন। এয়ারোডাইনামিক করার জন্য যোগ করা হয়েছে ফেন্ডার।

মোটরসাইকেলের তলার অংশ সুরক্ষিত করার জন্য রয়েছে আন্ডার কাউল। আর হ্যান্ডেলে থাকছে নাকল গার্ড। এই নাকল গার্ডেই টার্ন ইন্ডিকেটর রয়েছে CB 200X-এ।

হ্যান্ডেলবার একটু উঁচু করা হয়েছে। এতে ট্যুরিংয়ের সময়ে সোজা হয়ে বসা যাবে অনেকক্ষণ। কোমরে ব্যাথা হবে না।

ইঞ্জিন

Hornet 2.0-এর মতোই। ১৮৪.৪ CC, এয়ার-কুলড।

16.36 PS ম্যাক্স পাওয়ার, 15.5 NM টর্ক। ৫ স্পিড গিয়ারবক্স।

ফুয়েল ট্যাঙ্ক : ১২ লিটার

মাইলেজের বিষয়ে এখনও জানায়নি সংস্থা।

সাসপেনশান

Hornet 2.0-এর মতোই। সামনে আপ-সাইড-ডাউন ফোর্ক। পেছনের চাকায় মনো-শক।

গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স: ১৬৭ mm ।

ব্রেক : সামনের চাকায় ২৭৫ mm ডিস্ক। পেছনের চাকায় ২২০ mm ডিস্ক। থাকছে সিঙ্গেল চ্যানেল অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম।

টায়ার : অ্যাডভেঞ্চার ট্যুরার হলেও এতে একেবারে প্রপার অফ-রোড টায়ার ব্যবহার করা হয়নি। কারণ সেক্ষেত্রে প্রথমত দাম অনেকটা বেড়ে যেত। সেই সঙ্গে সাধারণ রাস্তায় চালাতে কিছুটা সমস্যা হত। তাই মাইল্ড অফ-রোড টায়ার দেওয়া হয়েছে। টিউবলেস। সামনে ১১০ সেকশন এবং পেছনে ১৪০ সেকশন।

থাকছে ১৭ ইঞ্চি-র অ্যালয় হুইলস।

ওজন

Honda CB 200X-এর ওজন ১৪৭ কিলোগ্রাম। ফলে তুলনামূলকভাবে হালকাই। রোজকার ট্রাফিকে চালাতে সেভাবে সমস্যা হবে না।

দাম : ১.৪৪ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। 

বন্ধ করুন