বাংলা নিউজ > টেকটক > গ্যাজেট 'মেরামত করার অধিকার' আনছে কেন্দ্র, এবার মোবাইল খারাপ হলে সংস্থা সারাবে

গ্যাজেট 'মেরামত করার অধিকার' আনছে কেন্দ্র, এবার মোবাইল খারাপ হলে সংস্থা সারাবে

ফাইল ছবি: রয়টার্স (Reuters)

Right To Repair: 'কমিটি মেরামতের অধিকারের অধীনে কৃষি সরঞ্জাম, মোবাইল ফোন/ট্যাবলেট, অটোমোবাইল/অটোমোবাইল সরঞ্জাম আনতে চাইছে,' উল্লেখ করা হয়েছে উক্ত বিবৃতিতে।

অদূর ভবিষ্যতে বাধ্যতামূলকভাবে মেরামত পরিষেবা সরবরাহ করতে হতে পারে গ্যাজেট নির্মাতাদের। মোবাইল ফোন, ল্যাপটপের মত পণ্য সারানোর সুবিধা দিতেই হবে সংস্থাদের। উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রক সম্প্রতি 'মেরামত করার অধিকার' বিষয়ে একটি বিস্তৃত কাঠামো তৈরির জন্য একটি কমিটি গঠন করেছে। বৃহস্পতিবার অফিসিয়াল সূত্রে মিলেছে এই খবর।

এই পদক্ষেপের ফলে প্রযুক্তিগত রক্ষণাবেক্ষণের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ পাল্টে যেতে পারে।

বিষয়টা কেমন হবে?

গাড়ি নির্মাতাদের পরিষেবার সঙ্গে এর তুলনা করতে পারেন। গাড়িতে কোনও যান্ত্রিক ত্রুটি থাকলে সংস্থারই সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে গিয়ে সেটা মেরামত করা যায়। কিন্তু মোবাইল ফোন সংস্থাগুলি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মেরামতের তেমন কোনও অপশন প্রদান করে না। যার ফলে গ্রাহকদের সম্পূর্ণরূপে ত্রুটিপূর্ণ যন্ত্রাংশ প্রতিস্থাপন করতে বা একেবারে নতুন ফোন কিনতে হয়।

'কমিটি মেরামতের অধিকারের অধীনে কৃষি সরঞ্জাম, মোবাইল ফোন/ট্যাবলেট, অটোমোবাইল/অটোমোবাইল সরঞ্জাম আনতে চাইছে,' উল্লেখ করা হয়েছে উক্ত বিবৃতিতে।

২০১৭ সালে বাফেলো বিশ্ববিদ্যালয়ের মোস্তফা সাব্বাঘির করা এক সমীক্ষা বলছে, যখন প্রযুক্তি পণ্যগুলির কার্যক্ষমতা হ্রাস পায়, তখন বেশিরভাগ ক্রেতাই তার বদলে একেবারে নতুন ডিভাইস কিনে নেন। এর মূল কারণ হল, ত্রুটিযুক্ত ডিভাইস নির্ভরযোগ্যভাবে সারানোর জায়গা খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই, নির্মাতারা সম্পূর্ণ সার্ভিসিং তথ্যাবলী প্রকাশ করে না।

ভারতে মেরামতের অধিকারের নতুন নীতির মূল লক্ষ্য হল স্থানীয় বাজারে ভোক্তা এবং পণ্য ক্রেতাদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করা। এটি আসল সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক এবং থার্ড পার্টি ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের মধ্যে ব্যবসার কাঠামোকে আরও সংগঠিত করবে।

বন্ধ করুন