বাংলা নিউজ > টেকটক > Alto 800 std বন্ধ করছে মারুতি সুজুকি! বদলে কোন গাড়ি আনছে জানেন?
 মাইলেজ : ২২.০৫ kmpl । দাম : ৩.১৫ লক্ষ থেকে ৪.৭০ লক্ষ টাকা। ছবি : মারুতি সুজুকি  (Maruti Suzuki)

Alto 800 std বন্ধ করছে মারুতি সুজুকি! বদলে কোন গাড়ি আনছে জানেন?

Maruti Alto 800: সূত্রের খবর, Maruti Alto 800-এর Std এবং LXI ভেরিয়েন্ট বন্ধ করে দিচ্ছে সংস্থা। তার বদলে মারুতি আবার Alto K10 লঞ্চ করার পরিকল্পনা করছে।

মারুতি অল্টো ৮০০-এর বিক্রি বন্ধ হচ্ছে। তার বদলে নতুন গাড়ি আনছে মারুতি সুজুকি।

সূত্রের খবর, Maruti Alto 800-এর Std এবং LXI ভেরিয়েন্ট বন্ধ করে দিচ্ছে সংস্থা। তার বদলে মারুতি আবার Alto K10 লঞ্চ করার পরিকল্পনা করছে।

মারুতি ২০২০ সালে Alto K10 বন্ধ করে দিয়েছিল। BS6 ইঞ্জিন দিয়ে আর সেই গাড়ি লঞ্চ করা হয়নি। গাড়িটি বন্ধ করার প্রধান কারণ ছিল Alto 800 এবং Alto K10-এর মডেল প্রায় একইরকম। দেখে কোনও পার্থক্য বোঝার উপায় নেই। এদিকে K10-এ ১,০০০ cc ইঞ্জিন ছিল। যার কারণে এর দাম Alto 800-এর চেয়ে বেশি ছিল।

এই কারণে, বেশিরভাগ ক্রেতারাই দেখতেন বাহ্যিকভাবে প্রায়একই মডেল। দামও কম। আর এমনিতেও ২০০ সিসির ইঞ্জিন পার্থক্য নিয়ে তাঁরা খুব একটা মাথা ঘামাতেন না। ফলে K10 ছেড়ে সকলে Alto 800-ই কিনতেন।

এদিকে যাঁদের কাছে K10-এর বাজেট ছিল, তাঁরা বেশি দাম দিয়ে একই দেখতে গাড়ি কিনতে চাইতেন না। বরং, WagonR নিতেন। ফলে বাধ্য হয়ে কোম্পানি K10 বন্ধ করে দেয়।

অল্টো K10। ছবি: মারুতি সুজুকি
অল্টো K10। ছবি: মারুতি সুজুকি (Maruti Suzuki)

গত অর্থবর্ষের পরিসংখ্যান বলছে, Maruti Suzuki Alto এবং S-Presso-র ২,১১,৭৬২ ইউনিট বিক্রি হয়েছে। অন্যদিকে Renault-এর Kwid-এর মতো এন্ট্রি-লেভেল হ্যাচব্যাক ২৬,৫৩৫ ইউনিট বিক্রি হয়েছে।

ভারতে এন্ট্রি-লেভেল হ্যাচব্যাকের বাজার প্রায় ২.৫ লক্ষ ইউনিট। মারুতি যদি K10-কে সঠিকভাবে মার্কেট করে, তাহলে তা Kwid-এর বাজারে আরও প্রভাব ফেলতে পারে। বর্তমানে, Kwid-এ ১০০০ cc ইঞ্জিন অপশনের পাশাপাশি ৮০০ cc-ও রয়েছে।

এদিকে ইতিমধ্যে জাপানে অল্টোর নতুন মডেলও লঞ্চ করেছে মারুতি সুজুকি। তাতে নতুন নিয়ো-রেট্রো লুক দিয়েছে সংস্থা। ক্লিক করুন এই লিঙ্কে, আর দেখুন কেমন হয়েছে অল্টোর নতুন মডেল।

বন্ধ করুন