বাংলা নিউজ > টেকটক > সাঁড়াশি চাপে মুকেশ অম্বানি? তাড়া করছেন জেফ বেজোস ও ইলন মাস্ক
ছবি : টুইটার (Twitter)
ছবি : টুইটার (Twitter)

সাঁড়াশি চাপে মুকেশ অম্বানি? তাড়া করছেন জেফ বেজোস ও ইলন মাস্ক

একদিকে ইলন মাস্কের ব্রডব্যান্ড পরিষেবা স্টারলিঙ্ককে টেক্কা দেওয়ার চ্যালেঞ্জ। অন্যদিকে জেফ বেজোসের ই-কমার্স সংস্থা আমাজনের সঙ্গে ফিউচার গ্রুপের আইনি লড়াই।

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দুই ব্যক্তির সঙ্গে লড়াই এশিয়ার ধনীতম ব্যক্তির। ইলন মাস্ক এবং জেফ বেজোসের সঙ্গে এবার ব্যবসায় সরাসরি টক্করে মুকেশ অম্বানি। একদিকে ইলন মাস্কের ব্রডব্যান্ড পরিষেবা স্টারলিঙ্ককে টেক্কা দেওয়ার চ্যালেঞ্জ। অন্যদিকে জেফ বেজোসের ই-কমার্স সংস্থা অ্যামাজনের সঙ্গে ফিউচার গ্রুপের আইনি লড়াই। ফলে সাঁড়াশি আক্রমণে কার্যত চাপে মুকেশ অম্বানি।

ইলন মাস্ক vs. মুকেশ অম্বানি

শীঘ্রই ভারতে ইন্টারনেট পরিষেবা শুরু করতে চলেছে স্টারলিঙ্ক। স্টারলিঙ্কের মূল সংস্থা স্পেসএক্স। যার প্রধান ইলন মাস্ক। এটি একটি স্যাটেলাইট ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংস্থা। রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতের গ্রামীণ এলাকায় সস্তায় ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে Starlink। এমনটা হলে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে মুকেশ অম্বানির রিলায়েন্স জিও।

বর্তমানে ভারতে জিও ব্যবহার করেন সবচেয়ে বেশি মানুষ। সস্তায় ইন্টারনেট পরিষেবা দিয়ে ভারতে ডেটার সংজ্ঞাই বদলে দিয়েছেন মুকেশ অম্বানি। এর মাঝেই যদি আরও সস্তায় পরিষেবা দেয় স্টারলিঙ্ক, সেক্ষেত্রে চাপে পড়তে পারে জিও। এমনটাও শোনা যাচ্ছে যে ভারতে টেলিকম সংস্থাগুলির সঙ্গে অংশীদারিত্বের কথাও ভাবছে স্টারলিঙ্ক। তবে কোন সংস্থার সঙ্গে হাত মেলাতে পারে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

আরও পড়ুন : সারা জীবনে মুকেশ আম্বানি যা কামিয়েছেন, এক বছরেই আয় করলেন ইলন মাস্ক

জেফ বেজোস vs. মুকেশ অম্বানি

অন্যদিকে জেফ বেজোসের ই-কমার্স সংস্থা অ্যামাজন এবং কিশোর বিয়ানির ফিউচার গ্রুপের মধ্যে জোরদার আইনি লড়াই চলছে। এর জেরে মুকেশ অম্বানির রিটেল ব্যবসা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

ফিউচার গ্রুপের ব্যবসা অধিগ্রহণের জন্য রিলায়েন্স রিটেল ২৪ হাজার কোটি টাকারও বেশি অঙ্কের চুক্তি করেছে। এদিকে অ্যামাজনের এই চুক্তিতে আপত্তি রয়েছে। অ্যামাজনের বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন আদালতে মামলা করেছে। এর ফলে রিলায়েন্স ও ফিউচারের চুক্তি আটকে গিয়েছে। এই চুক্তি সম্পন্ন হলে রিটেল ব্যবসায় রিলায়েন্সের আধিপত্য বাড়বে।

আরও পড়ুন : ফিউচার গ্রুপের সঙ্গে চুক্তি করার সময়সীমা বাড়াল রিলায়েন্স

বন্ধ করুন