বাংলা নিউজ > টেকটক > বিভ্রাট, ভোগান্তি! স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড-সহ বন্ধ থাকল একাধিক অ্যাপ
স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড-সহ বন্ধ থাকল একাধিক অ্যাপ (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)
স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড-সহ বন্ধ থাকল একাধিক অ্যাপ (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

বিভ্রাট, ভোগান্তি! স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড-সহ বন্ধ থাকল একাধিক অ্যাপ

  • এর আগে গতমাসেই মেটার অধীনে থাকা ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম বন্ধ হয়ে গিয়েছিল প্রায় ছয় ঘণ্টার জন্য।

ফের ইন্টারনেট অ্যাপ বিভ্রাট। গতরাতে ক্ষণিকের জন্য বন্ধ থাকল একাধিক জনপ্রিয় অ্যাপ ও ইন্টারনেট সার্ভিস। স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড সহ একাধিক সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ কাজ করা বন্ধ করে দেয় মঙ্গলবার রাতে। বিভ্রাটের কথা স্বীকার করেছে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলি। তবে পরবর্তীতে যাতে ব্যবহারকারীরা অসুবিধায় না পড়েন, সেই বিষয়ে নজর রাখার কথা বলেছে সকলেই।

ফের ইন্টারনেট অ্যাপ বিভ্রাট। গতরাতে ক্ষণিকের জন্য বন্ধ থাকল একাধিক জনপ্রিয় অ্যাপ ও ইন্টারনেট সার্ভিস। স্ন্যাপচ্যাট, স্পটিফাই, গুগল ক্লাউড সহ একাধিক সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ কাজ করা বন্ধ করে দেয় মঙ্গলবার রাতে। বিভ্রাটের কথা স্বীকার করেছে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলি। তবে পরবর্তীতে যাতে ব্যবহারকারীরা অসুবিধায় না পড়েন, সেই বিষয়ে নজর রাখার কথা বলেছে সকলেই।

|#+|

মূলত সমস্যটা দেখা দিয়েছিল গুগলের ক্লাউডে। সেই ক্লাউড সার্ভিস ব্যবহারারী অ্যআপগুলিও তাই বন্ধ হয়েছিল এই সময়ে। গুগলের তরফে এই বিভ্রাট প্রসঙ্গে জানানো হয়, তাদের ক্লাউড নেটওয়ার্কিংয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছিল। তার কারণে নিজস্ব ক্লাউড পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এদিকে গুগলের ক্লাউড সার্ভিস ব্যবহারকারী এটসি, স্পটিফাই ও স্ন্যাপ চ্যাটের অ্যাপও তাই বন্ধ হয়ে যায় বিশ্বজুড়ে।

এই বিভ্রাটের পর স্পটিফাইয়ের তরফে টুইট করে বলা হয়, 'আমরা প্রযুক্তিগত সমস্যায় পড়েছি। সমস্যা সমাধানের কাজ চলছে।' একই সুরে সমস্যার কথা জানিয়ে অ্যাপ ব্যবহারকারীদের ধৈর্য্য ধরার কথা বলে স্ন্যাপচ্যাট কর্তৃপক্ষ। এর আগে গুগল ক্লাউডের ড্যাশবোর্ডে দেখা গিয়েছিল যে ক্লাউড ডেভেলপার টুল, ক্লাউড কনসোল ও ক্লাউড ইঞ্জিন ঠিক ভাবে কাজ করছে না। এর আগে গতমাসেই মেটার অধীনে থাকা ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম বন্ধ হয়ে গিয়েছিল প্রায় ছয় ঘণ্টার জন্য। এর জেরে সমস্যায় পড়েছিলেন কয়েক কোটি মানুষ। সেবার ‘ডোমেন নেম সিস্টেমে’ সমস্যা হয়েছিল বলে জানিয়েছিল সংস্থার কর্তৃপক্ষ।

বন্ধ করুন