বাংলা নিউজ > টেকটক > Tesla Self Dirving Car Beta: সম্পূর্ণ নিজে নিজেই চলবে গাড়ি, বিশ্বকে চমক টেসলার

Tesla Self Dirving Car Beta: সম্পূর্ণ নিজে নিজেই চলবে গাড়ি, বিশ্বকে চমক টেসলার

ফাইল ছবি : টেসলা (Tesla)

শুরু থেকেই Tesla 'সেলফ ড্রাইভ' প্রযুক্তির মাধ্যমে সকলের নজর কেড়েছে। কিন্তু এতদিন সেটি কিছুটা সীমাবদ্ধ ছিল। বড় রাস্তায় সেলফ ড্রাইভ ব্যবহার করা যেত। তাছাড়া গাড়ি পার্কিং, সেখান থেকে বের করে আনার মতো বিষয়গুলির ক্ষেত্রে এগুলির প্রয়োগ করা যেত।  

সম্পূর্ণ নিজে নিজে চলবে গাড়ি। আপনাকে হাতও দিতে হবে না। মানে ধরুন, চালকের আসনে বসলেন। কিন্তু সেভাবে গাড়ি চালাতেই হল না। কল্পবিজ্ঞান মনে হচ্ছে? আসলে সেই অকল্পনীয় বিষয়টাই বাস্তব করতে চলেছে টেসলা। 'ফুল সেলফ-ড্রাইভিং' অর্থাত্ সম্পূর্ণ স্বয়ংচালিত ইলেকট্রিক গাড়ির বেটা টেস্টিং শুরু করল সংস্থা।

বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তি ইলন মাস্কের সংস্থা টেসলা। শুরু থেকেই সংস্থা 'সেলফ ড্রাইভ' প্রযুক্তির মাধ্যমে সকলের নজর কেড়েছে। কিন্তু এতদিন সেটি কিছুটা সীমাবদ্ধ ছিল। বড় রাস্তায় সেলফ ড্রাইভ ব্যবহার করা যেত। তাছাড়া গাড়ি পার্কিং, সেখান থেকে বের করে আনার মতো বিষয়গুলির ক্ষেত্রে এগুলির প্রয়োগ করা যেত। কিন্তু সংস্থার লক্ষ্য বরাবরই সম্পূর্ণ নিজে থেকে চলা গাড়ির প্রতি ছিল। আর সেটাই ধীরে ধীরে বাস্তবায়িত হচ্ছে। আরও পড়ুন: 'অনেক বাধা আসছে,' ভারতে টেসলা লঞ্চ নিয়ে বেঁফাস ইলন মাস্ক

বেটা ভার্সান হিসাবে এই আপডেট প্রদান করা হচ্ছে মার্কিন মুলুকের টেসলা ক্রেতাদের। তবে বেটা ভার্সানের জন্য যাঁরা টাকা দিয়েছিলেন, তাঁরাই এই আপডেট সবার আগে পাবেন। বৃহস্পতিবার এই বিষয়ে ঘোষণা করেন ইলন মাস্ক।

২০২০ সাল থেকে কিছু নির্দিষ্ট ক্রেতাকে অবশ্য এই ফিচার পাঠিয়েছিল সংস্থা। তাঁদের মাধ্যমে বিষয়টি আরও ডেভেলপ করা হচ্ছিল।

সংস্থার বিবৃতি অনুযায়ী, টেসলার এই অটোপাইলট/সেলফ ড্রাইভ ফিচারে নিম্নলিখিত সুবিধা মিলবে,

অটোপাইলট

ট্রাফিক-সংবেদন ক্রুজ কনট্রোল: আশেপাশের ট্রাফিক কেমন? অন্যান্য গাড়িগুলির গতি কেমন? রাস্তায় এই সবকিছুই পর্যবেক্ষণ করবে এআই। আর তার মাধ্যমে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রিত হবে নিজে থেকেই।

সিগনাল বোঝা: ট্রাফিক সাইন পড়া, ট্রাফিক লাইট দেখে নিজে থেকে থামা বা চলতে শুরু করার মতো কাজও করতে পারবে টেসলার গাড়ি।

ফাইল ছবি: রয়টার্স
ফাইল ছবি: রয়টার্স (Reuters)

অটো-স্টিয়ার: মার্কিন মুলুকে মার্কিং করা লেনের ক্ষেত্রে নিজে থেকেই রাস্তা পরিবর্তন, মোড় ঘোরার মতো জটিল কাজ করতে পারবে টেসলার গাড়ি। ইতিমধ্যেই এই ফিচারের বেশ কিছু ভিডিয়ো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাতে দেখা যাচ্ছে, চালককে কিছুই করতে হচ্ছে না। নিজে থেকেই লেন পরিবর্তন, পাশের রাস্তায় প্রবেশ করার মতো কাজ করছে টেসলার গাড়ি। স্টিয়ারিং ঘুরছে নিজে নিজেই। বিষয়টি এক কথায় রোমাঞ্চকর।

ন্যাভিগেশন-সহ অটোপাইলট: গাড়ির নেভিগেশন ব্যবহার করলে নিজে থেকেই লেন পরিবর্তন, পাশের রাস্তায় প্রবেশ, টার্ন সিগন্যাল ব্যবহার করার মতো কাজগুলি হবে।

অটো পার্ক: আগেই এই ফিচার ছিল। এর মাধ্যমে গাড়ির স্ক্রিনে একটি মাত্র টাচ, অথবা আপনার ফোনেই পার্ক করতে বললে নিজে নিজে গাড়ি পার্ক হয়ে যাবে। খুব সরু, ছোট গ্যারেজ, দুইটি গাড়ির মাঝের সরু স্থানেও নিজে নিজে পার্কিং হয়ে যাবে। তাই চালককে এইসব নিয়ে মাথা ঘামানোর কোনও প্রয়োজনই হবে না।

সামন: ধরুন আপনি শপিং করে বের হলেন। সামনে মলের পার্কিং লটে গাড়ি রাখা। এদিকে বৃষ্টি হচ্ছে। হাতে জিনিসপত্র নিয়ে যেতে যেতে ভিজে যাবেন। 'কুছ পরোয়া নেহি!' আপনার ফোন বের করুন। টেসলার অ্যাপের মাধ্যমে গাড়িকে 'সামন' বা ডেকে নিলেই হবে। নিজে নিজেই গাড়ি এসে হাজির হবে আপনার সামনে। আরও পড়ুন: Video: টেসলার চালকের আসনে বসে গভীর ঘুম, হাইওয়ে দিয়ে ছুটছে গাড়ি, তারপর যা হল…

তবে এক্ষেত্রে টেসলা স্পষ্ট জানিয়েছে যে, অটোপাইলট মানে এই নয় যে আপনি গাড়ি চালিয়ে দিয়ে ভাতঘুম দেবেন। আপনাকে অবশ্যই চালকের আসনে প্রস্তুত থাকতে হবে। যদিও সমালোচকরা টেসলার সেলফ ড্রাইভিং নিয়ে মোটেই খুশি নন। তাঁদের মতে, এতে রাস্তাঘাট আরও বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে।

আপনার এই বিষয়ে কী মতামত? নিজে নিজে চলা গাড়িই কি আমাদের ভবিষ্যত?

বন্ধ করুন