বাংলা নিউজ > টেকটক > বিশ্বজুড়ে ব্যাহত Whatsapp পরিষেবা, কাজ করছে না Facebook, Instragram-ও
বিশ্বজুড়ে ব্যাহত Whatsapp, Facebook, Instragram পরিষেবা। (ছবিটি প্রতীকী) (REUTERS)
বিশ্বজুড়ে ব্যাহত Whatsapp, Facebook, Instragram পরিষেবা। (ছবিটি প্রতীকী) (REUTERS)

বিশ্বজুড়ে ব্যাহত Whatsapp পরিষেবা, কাজ করছে না Facebook, Instragram-ও

ডাউন ডিটেক্টরের তরফে জানানো হয়েছে, ব্যবহারকারীদের অভিযোগ থেকে মনে হচ্ছে যে হোয়্যাটসঅ্যাপে সমস্যা হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে বড়সড় বিভ্রাটের মুখে পড়ল ফেসবুক। একইসঙ্গে ব্যাহত হল হোয়্যাটসঅ্যাপ ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম পরিষেবা। এমনটাই জানিয়েছে অনলাইনে বিভিন্ন পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার উপর নজরদারি সংস্থা ‘ডাউন ডিটেক্টর’ (Downdetector)। একটি সংবাদসংস্থার দাবি, সেই বিভ্রাটের মুখে পড়েছেন বিশ্বের কয়েক কোটি মানুষ। 

নেটিজেনদের দাবি, সোমবার রাত ন'টার কিছুটা পর থেকে হোয়্যাটসঅ্যাপে মেসেজ যাচ্ছিল না। ইন্টারনেট ‘অন’ থাকলেও হচ্ছিল না কোনও কাজ। প্রাথমিকভাবে ‘ডাউন ডিটেক্টর’-এর তরফে জানানো হয়, ব্যবহারকারীদের অভিযোগ থেকে মনে হচ্ছে যে হোয়্যাটসঅ্যাপে সমস্যা হয়েছে। ওই সাইটের তথ্য অনুযায়ী, রাত ৯ টা ২৩ মিনিট পর্যন্ত হোয়্যাটসঅ্যাপ নিয়ে ১৮,৩৩৯ টি অভিযোগ জমা পড়েছে।

‘ডাউন ডিটেক্টর’-এ হোয়্যাটসঅ্যাপ (ছবি সৌজন্য Downdetector)
‘ডাউন ডিটেক্টর’-এ হোয়্যাটসঅ্যাপ (ছবি সৌজন্য Downdetector)

পরে অনেকেই দাবি করেন, শুধু নয় হোয়্যাটসঅ্যাপ নয়, ব্যাহত হয়েছে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম পরিষেবাও। আপাতত বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের নেটিজেনদের ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুক খুলছে না। অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে পেজ লোড হচ্ছে না। বলা হচ্ছে, ‘এই সাইটে পৌঁছানো যায়নি (This site can’t be reached)’। ‘ডাউন ডিটেক্টর’ (Downdetector)-এর তথ্য অনুযায়ী, রাত ৯ টা ১৩ মিনিট পর্যন্ত ফেসবুক নিয়ে ৮৬,৫১৫ টি অভিযোগ জমা পড়েছে। ইনস্টাগ্রামের সেই সংখ্যাটা ৫৩,০৫৬ (রাত ৯ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত)।

সেই বিভ্রাট নিয়ে হোয়্যাটসঅ্যাপের তরফে বলা হয়েছে, ‘আমরা জানি যে কয়েকজন মানুষ বর্তমানে হোয়্যাটসঅ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সমস্যার মুখে পড়ছেন। সবকিছু স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনার জন্য আমরা কাজ করছি এবং যত দ্রুত সম্ভব আপডেট দেব।’ তারপরই ফেসবুকের তরফে বলা হয়েছে, ‘আমরা জানি আমাদের প্রোডাক্ট এবং অ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু মানুষ সমস্যায় যে পড়ছেন, তা আমরা জানি। যত দ্রুত সম্ভব পরিষেবা স্বাভাবিক করার জন্য আমরা কাজ করছি। যে কোনও রকম বিভ্রাটের জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী।’

বন্ধ করুন