বাংলা নিউজ > টেকটক > থার্ড পার্টি কুকি বন্ধ হওয়ার পর সরাসরি আর ট্র্যাক করা হবে না, আশ্বাস গুগলের
ফাইল ছবি (AP)
ফাইল ছবি (AP)

থার্ড পার্টি কুকি বন্ধ হওয়ার পর সরাসরি আর ট্র্যাক করা হবে না, আশ্বাস গুগলের

শুধু ব্রাউজার নয়, গুগল-এর অন্যান্য প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেও আর থার্ড পার্টি কুকির মাধ্যমে অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকিং করা হবে না বলে জানানো হয়েছে।

থার্ড পার্টি কুকির ব্যবহার বন্ধ হবে বলে আগেই জানানো হয়েছিল। বন্ধ হওয়ার পর সেগুলি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীর অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকিং করবে না গুগুল। বুধবার একটি ব্লগ পোস্টে এমনটাই জানিয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম সার্চ ইঞ্জিন।

গত বছরেই সংস্থা জানায় যে ধীরে ধীরে গুগল ক্রোম ব্রাউজার থেকে থার্ড পার্টি কুকি-র সাপোর্ট তুলে নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। বুধবার সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে গুগল জানায় যে সেই কুকির পরিবর্তে অন্য কোনও মাধ্যমে অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকিং করার কোনও পরিকল্পনা নেই সংস্থার। নিজেদের মুনাফার চেয়েও ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যের গুরুত্ব দিতেই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে সংস্থা।

শুধু ব্রাউজার নয়, গুগল-এর অন্যান্য প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেও আর থার্ড পার্টি কুকির মাধ্যমে অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাকিং করা হবে না বলে জানানো হয়েছে।

কুকি কী? কোনও কোনও ওয়েবসাইট খোলার সময়ে অ্যাকসেপ্ট কুকিজ বলে একটি অপশন দেখায়। সেটায় ক্লিক করলেই গুগল তার মাধ্যমে আপনার পছন্দ-অপছন্দ, কী দেখছেন, সার্চ করছেন তা নজর রাখতে ও তথ্য জমাতে শুরু করে। এর কারণেই দেখবেন একটি শপিং পোর্টালে কোনও জিনিস দেখার পর অন্য কোনও ওয়েবসাইট বা ইউটিউব খুললেও ঠিক সেই জিনিসেরই বিজ্ঞাপণ আসতে থাকে।

গুগল তার এই বিজ্ঞাপণ অর্থাত্ অ্যাডসেন্স-এর মাধ্যমে বৃহত্ মুনাফা করে। আর তার মূল ভিত্তিই এই কুকি।তবে, এই কুকির মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে বারবার।

গুগল-এর এক আধিকারিক জানালেন, এবার থেকে প্রাইভেসি সংরক্ষণকারী API-এর মাধ্যমে সংস্থার ওয়েব পরিষেবাগুলি চালিত হবে। এর ফলে বিজ্ঞাপণ প্রদানকারীদের ও কন্টেন্ট পাবলিশারদের ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হবে না। ব্যবহারকারীদের প্রাইভেসি রক্ষা করেই প্রদর্শিত হবে বিজ্ঞাপণ। অর্থাত্ থার্ড পার্টি কুকির বদলে নিজেরাই এবার নতুন ও সুরক্ষিত পদ্ধতিতে ট্র্যাকিং করবে গুগল।

তাই টার্গেট অ্যাডভার্টাইজিং যে একেবারে বন্ধ হয়ে যাবে এমনটা কিন্তু একেবারেই নয়। তবে, পুরনো পদ্ধতির বদলে এবার আরও কিছুটা আধুনিক ও সুরক্ষিত হবে সেই ব্যবস্থা।

বন্ধ করুন