বাংলা নিউজ > দেখতেই হবে > বাংলার মুখ > রাতের অন্ধকারে দেড় ঘণ্টায় ৩৬ জনকে কামড় কুকুরের, আসানসোল জুড়ে আতঙ্ক
রাতের অন্ধকারে দেড় ঘণ্টায় ৩৬ জনকে কামড় কুকুরের, আসানসোলের হাসপাতালে আক্রান্তের ভিড়।ছবিটি প্রতীকী (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌
রাতের অন্ধকারে দেড় ঘণ্টায় ৩৬ জনকে কামড় কুকুরের, আসানসোলের হাসপাতালে আক্রান্তের ভিড়।ছবিটি প্রতীকী (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌

রাতের অন্ধকারে দেড় ঘণ্টায় ৩৬ জনকে কামড় কুকুরের, আসানসোল জুড়ে আতঙ্ক

  • আসানসোলের হাসপাতালে আক্রান্তের ভিড়

ঘটনা ঘটেছে বুধবার রাত সাড়ে আটটা থেকে ১০ টার মধ্যে। শীতের রাতে টানা দেড় ঘণ্টায় ৩৬ জনকে কামড় বসিয়েছে স্থানীয় এক কুকুর। এরপরই ত্রস্ত আসানসোল। এলাকায় এই ঘটনার জেরে রীতিমতো আতঙ্কের ছায়া। আসানসোলের বহু হাসপাতালে আহতরা ভর্তি রয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ছয়জন মহিলা ছাড়াও রয়েছে বেশ কয়েকজন শিশু।

কুকুরের কামড়ে একের পর জন আক্রান্ত হতেই কার্যত রাস্তায় বের হতে ভয় পাচ্ছেন আসানসোলের একাধিক মানুষ। স্থানীয়দের দাবি যে এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে, কুকুরটি সেই এলাকার নয়। তাঁদের দাবি কুকুরটি অসুস্থ। এদিকে, ঘটনার জেরে আসানসোলের জেলা হাসপাতালে ক্রমেই বাড়ছে অসুস্থ মানুষের ভিড়। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অন্তত ৩৬ জন হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গিয়েছেন বলে খবর। তবে মনে করা হচ্ছে, আক্রান্তের সংখ্যা আরও বেড়ে যেতে পারে। কারণ অনেকেই সরকারি হাসপাতাল ছাড়াও বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার আশ্রয় নিয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে বহুজনের দাবি, তাঁদের চোখের সামনেই একাধিক জনকে ওই কুকুর কামড়ে যায়। এদিকে যে কুকুরকে ঘিরে এই অশান্তি সেই কুকুর আশপাশের এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে খবর।

উল্লেখ্য, আসানসোলের ঘাঁটি গলি, রাহা লেন, লক্ষ্মী মন্দির, সহ বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা এই কুকুরের কামড়ে আক্রান্ত হয়েছেন। মূলত, আসানসোল দক্ষিণ থানার উল্টোদিকের এলাকা জুড়ে এই কুকুরের কামড়ের ত্রাস ছড়িয়েছে। অনেকেই দরকারি কাজে রাস্তায় বেরিয়েই এই কুকুরির নিশানা হয়েছে বলে খবর। আতঙ্কের রেশ এতটাই যে, এলাকাবাসী যে শুধু ঘর থেকে বের হতে পারছেন না তা নয়। একই সঙ্গে বহু দোকানপাটও বন্ধ রয়েছে এলাকায়। এই ধরনের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আপাতত ওই কুকুরকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।

বন্ধ করুন