বাড়ি > দেখতেই হবে > ঘরে বাইরে > জনসংখ্যার ০.৭৩ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত, ৬৫ জেলায় সমীক্ষা চালিয়ে বলল ICMR

জনসংখ্যার ০.৭৩ শতাংশ করোনায় আক্রান্ত, ৬৫ জেলায় সমীক্ষা চালিয়ে বলল ICMR

দেশে এই মুহূর্তে কনটেনমেন্ট জোনের বাইরে বাকি সব জায়গায় শুরু হয়েছে আনলক ১। একমাত্র কনটেনমেন্ট জোনে চলছে লকডাউন। সেই নিয়ে আশঙ্কায় অনেকে। তাহলে হয়তো হুহু করে বেড়ে যাবে করোনাভাইরাস। সেই পরিপ্রক্ষিতে কিছুটা আশার কথা শোনালো ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)। তারা জানিয়েছে যে কনটেনমেন্ট জোনের বাইরে মাত্র ০.৭৩ শতাংশ মানুষ করোনা পজিটিভ। আইসিএমআরের সিরো সার্ভেতে এই তথ্য উঠে এসেছে। এতে মানুষের ব্লাড সিরাম নিয়ে দেখা হয় সেখানে অ্যান্টিবডি আছে কিনা। অ্যান্টিবডি থাকার অর্থ হল করোনাভাইরাস আছে পরীক্ষিত ব্যক্তির শরীরে। জেলায় জেলায এই সমীক্ষা চালিয়েছে আইসিএমআর। ইনফেকশন কতটা ছড়িয়েছে, গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায় সেটি গিয়েছে কিনা, সেটা বোঝার জন্যেই এই সমীক্ষা। দুই ভাগে এই সমীক্ষা করেছে আইসিএমআর। প্রথমভাগে সাধারণ জনগনের মধ্য থেকে করা হয়েছে তথ্য সংগ্রহ। সেখানে অ্যান্টিবডি টেস্ট ও RT-PCR টেস্ট দুটিই করা হয়েছে এটা নির্ধারণ করার জন্য যে কারা সেরে উঠেছেন ও কারা এখনও অ্যাক্টিভ কেস। সেখান থেকে দেখা গিয়েছে, যে শহুরে অঞ্চলে করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা গ্রামের চেয়ে ১.০৯ গুণ বেশি। একই সঙ্গে শহুরে বস্তিতে করোনা হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় ১.৮৯ শতাংশ বেশি। সমীক্ষা থেকে এটা বেরিয়ে এসেছে যে লকডাউনের ফলে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে থেকেছে করোনা। সিরো সার্ভে দ্বিতীয় ভাগে আইসিএমআর এটা জানতে চায় যে কত শতাংশ ভারতীয় কনটেনমেন্ট জোনে করোনা পজিটিভ। সেই সমীক্ষা এখনও চলছে। প্রথম ভাগে ৮৩ জেলায় ২৬,৪০০ জনের মধ্যে সমীক্ষা হয়েছে। তর মধ্যে এখনও ৬৫ জেলার তথ্য কমপাইল করতে পেরেছে আইসিএমআর। তবে এই তথ্য ২৫ এপ্রিল অবধি, তাই এরপরেও অনেকটা বদলেছে পরিস্থিতি, যেটা এই সমীক্ষায় প্রতিফলিত হচ্ছে না। তবে আইসিএমআর বলছে এখনও ভারত গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায় যায়নি, যদিও মোট আক্রান্তের সংখ্যায় প্রায় দুই লক্ষ।