আরোগ্য সেতুতে গ্রিন স্টেটাস থাকলে কোয়ারেন্টাইনে যেতে হবে না বলছে কেন্দ্র, মানছে না কর্নাটক

অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী শনিবার বলেন যাদের শরীরে করোনার চিহ্ন নেই, গন্তব্যস্থলে গিয়ে তাদের কোয়ারেন্টাইন করার প্রয়োজন নেই। তিনি বলেন যে আরোগ্য অ্যাপে গ্রিন স্ট্যাটাস দেখালে কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার দরকার নেই। আরোগ্য সেতু হল কেন্দ্রীয় সরকারে কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ। 

হরদীপ পুরী বলেন যে আমরা তো বলেই দিয়েছি আরোগ্য অ্যাপ পাসপোর্টের মতো। সেখানে সবুজ স্ট্যাটাস থাকলে আবার কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার প্রশ্ন কোথায়। 

অন্যদিকে ঠিক এর বিপরীত মেরুতে একটি বিজেপি শাসিত রাজ্য! কর্নাটক জানিয়েছে রাজ্যে বাইরে থেকে কেউ এলে তাকে বাধ্যতামূলক ভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে যেতে হবে।

 একই সঙ্গে তারা বলেছে যে মহারাষ্ট্র, গুজরাত, তামিল নাড়ু, দিল্লি, রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ থেকে আসা মানুষদের সাতদিন সরকারি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকতে হবে। তারপরে সাত দিন বাড়িতে বন্দি হয়ে থাকলেও চলবে যদি তাদের করোনা টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। 

তবে দশ বছরের ছোটো বাচ্চা, ৮০ ঊর্ধ্বদের ও খুব অসুস্থ রোগীদের ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। যেসব ব্যবসায়ী জরুরি কাজে রাজ্যে আসছেন তাদেরও ছাড় দেওয়া হবে যদি তারা নেগেটিভ করোনা টেস্টের লেটেস্ট রিপোর্ট নিয়ে আসতে পারেন।