বাংলা নিউজ > দেখতেই হবে > ঘরে বাইরে > কেরালার চার্চে করোনাবিধি ‘উপেক্ষা’ করে জমায়েত, আক্রান্ত শতাধিক, মৃত ২
কেরালার চার্চে করোনাবিধি ‘উপেক্ষা’ করে জমায়েত, আক্রান্ত শতাধিক, মৃত ২। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)‌
কেরালার চার্চে করোনাবিধি ‘উপেক্ষা’ করে জমায়েত, আক্রান্ত শতাধিক, মৃত ২। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)‌

কেরালার চার্চে করোনাবিধি ‘উপেক্ষা’ করে জমায়েত, আক্রান্ত শতাধিক, মৃত ২

  • করোনাভাইরাসের প্রকোপের মধ্যেই কেরালার মুন্নারের চার্চে হয়েছিল অনুষ্ঠান।

করোনাভাইরাসের প্রকোপের মধ্যেই কেরালার মুন্নারের চার্চে হয়েছিল অনুষ্ঠান। সেখানে যাবতীয় করোনা বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছিল। পরে বিষয়টি সামনে আসে যখন  আক্রান্ত হলেন ১০০ জনের বেশি। মৃত্যু হয়েছে দু'জনের । পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। অনেকেই বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল চার্চে। বিভিন্ন চার্চ থেকে অংশগ্রহণকারী সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন। অভিযোগ ওঠে, করোনা বিধি উপেক্ষা করা হয়েছিল। সেইসঙ্গে সেখানে অংশগ্রহণ করতে বাধ্য করা হয়।

সম্প্রতি এই ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের তিরুঅনন্তপুরমে। সেখানকার মুন্নারের চার্চ অফ সাউথ ইন্ডিয়া (‌সিএসআই)—এ‌ ১৩ থেকে ১৭ এপ্রিল পর্যন্ত বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল।

কমপক্ষে ৩৫০ জন ধর্মযাজকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তিরুঅনন্তপুরমের বিভিন্ন চার্চ থেকে তাঁরা ওই সম্মেলনে যোগ দিতে এসেছিলেন। চার দিন পর অনুষ্ঠান শেষে যে যার বাড়িতে ফিরে যান। তাঁদের মধ্যে অসুস্থ বোধ করতে থাকেন। করোনার পরীক্ষা করা হলে, তাঁদের অধিকাংশের রিপোর্ট পজিটিভ হয়। সূত্রের খবর, ২৯ এপ্রিলে রেভ শাইন বি রাজ ও ৪ মে রেভ বিজুমন(‌৫২)‌ নামের এই দুই ধর্মযাজক করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। 

এই ঘটনা নিয়ে পূর্ণার্থীরা রাজ্যের মুখ্যসচিবের কাছে অভিযোগ জানান। তাঁদের অভিযোগ, ওই অনুষ্ঠানে করোনাবিধির তোয়াক্কা করা হয়নি। এমনকী, দক্ষিণ কেরলের বিশপ রেভ এ ধর্মরাজ রাসালামের বিরুদ্ধে তাঁরা অভিযোগ তোলেন যে, ওই ধর্মযাজক অন্যান্য ফাদারদের সেখানে উপস্থিত হওয়ার জন্য শাসিয়েছিলেন। কারণ, বয়স ও বিভিন্ন ব্যাধি থাকার জন্য অনেকেই সেখানে আসতে চাননি। সেক্ষেত্রে চার্চের আয়োজকদের ওপর যাতে করোনা বিধিভঙ্গের কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হয়, সেই আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা। যদিও ইদুক্কি জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, তাঁদের কাছে এই জমায়েতের কোনও আগাম খবর ছিল না।

বন্ধ করুন