Hindustan Times
Bangla

মদ বিক্রি নিষিদ্ধ এই ৫ দেশে, রয়েছে কড়া আইন

বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই মদ্যপান একটি অতি স্বাভাবিক ব্যাপার। কিন্তু হাতে গোনা কয়েকটি দেশে আজও মদ্যপান নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশাপূর্ণ আইন।

আইনত মদকে পরিপূর্ণভাবে নিষিদ্ধ করে রেখেছে বেশ কিছু দেশ। কোন অজুহাতে মদের উপর এমন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তারা? চলুন, জেনে নেওয়া যাক-

সোমালিয়া- হর্ন অব আফ্রিকায় অবস্থিত সোমালিয়া মদ্যপান বিষয়ক আইন প্রণয়নের ক্ষেত্রে খুবই কঠোর। এখানে মদ উৎপাদন, বিক্রি এবং পান্য পুরোপুরি নিষিদ্ধ।

সোমালিয়া- অবশ্য অমুসলিম এবং ভ্রমণরত বিদেশিরা যদি মদ্যপানে আগ্রহী হয়, তবে তাদেরকে তা করতে হয় নিজেদের ব্যক্তিগত পরিসরে। দেশের ভেতরে যারা ইসলামী শরীয়ত অমান্য করে, তাদের কড়া সাজা দেওয়া হয়। 

সৌদি আরব- বিশ্বব্যাপী মুসলিম উম্মাহদের জন্য সবচেয়ে পবিত্র হিসেবে বিবেচিত সৌদি আরবে মদ পুরোপুরি নিষিদ্ধ। এদেশে মদ উৎপাদন, বিক্রি ও পান করার অনুমতি নেই। 

সৌদি আরব- বিমানবন্দরগুলিতে খুব কড়াকড়ির সাথে আগত যাত্রীদের ব্যাগপত্র তল্লাশি করা হয়, যেন কেউ মদ নিয়ে দেশের অভ্যন্তরে মদ নিয়ে প্রবেশ করতে না পারে। প্রকাশ্যে যারা মদ বিক্রি বা পান করতে গিয়ে ধরা পড়ে, তাদেরকে কঠোর শাস্তি দেওয়া হয়।

লিবিয়া- বাইরের দেশ থেকে আগত ভ্রমণকারীদেরকে লিবিয়ায় তাদের স্থানীয় প্রথা ও বিধিনিষেধের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করতে বলা হয়। দেশটিতে মদ বিষয়ক আইন অত্যন্ত কড়া

লিবিয়া- ওই দেশে মদ বিক্রি ও পান সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। যারা এ আইন অমান্য করে এবং প্রকাশ্যে মদ বিক্রি বা পান করে, তাদেরকে কঠোর শাস্তি দেওয়া হয়। তবে তারপর দেশটির বিভিন্ন জায়গায় বেআইনিভাবে মদ বিক্রির অভিযোগ পাওয়া যায়। 

কুয়েত- কুয়েতে মদ বিক্রি, পান বা সঙ্গে রাখা আইনত নিষিদ্ধ। এখানে মদ্যপান করে গাড়ি চালানো কঠোর ভাবে নিষিদ্ধ। 

কুয়েত- এমনকি সামান্য পরিমাণ মদের অস্তিত্বও যদি কোনও গাড়ি চালকের শরীরে পাওয়া যায়, তবে তাকে চড়া মাশুল গুনতে হয়। পাবলিক প্লেসে মদ্যপান নিষিদ্ধ, ফলে বিদেশিদেরও কারাদণ্ড দেওয়া হয় বা নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়।