বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Python worshipped: মন্দিরের গুহাবাসী পাইথনকে পুজো! আদরের ডাক 'অজগর দাদা' কে নিয়ে মত্ত এই এলাকার মানুষ

Python worshipped: মন্দিরের গুহাবাসী পাইথনকে পুজো! আদরের ডাক 'অজগর দাদা' কে নিয়ে মত্ত এই এলাকার মানুষ

পাইথন। প্রতীকী ছবি। (Photo by Chaideer MAHYUDDIN / AFP) (AFP)

বাগরাজ মন্দিরের ভিতরে একটি গুহায় উদ্ধার হয়েছে পাইথনটি। স্থানীয়রা তাকে আদর করে নাম দিয়েছেন ‘অজগর দাদা’। তাঁরা বলছেন, মাঝে মাঝে ওই সরীসৃপ বের হয়। এদিকে, ওই সাপ বের হতেই মন্দিরে মন্ত্রোচ্চারণ শুরু হয়। চলে পুজোপাঠ।

সদ্য ভাইরাল হওয়া এক ভিডিয়োয় উঠে এসেছে মধ্যপ্রদেশের সাগর জেলার চাঞ্চল্যকর ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে। সেখানে বাগরাজ মন্দিরে একটি পাইথনকে পুজো করা হচ্ছে। স্থানীয়দের দাবি, এই পাইথন অ্যানাকোন্ডার থেকেও বড় বলে দাবি তাঁদের। আর সেই কারণেই এই পাইথনকে দেবজ্ঞানে পুজো করা হচ্ছে। 

বাগরাজ মন্দিরের ভিতরে একটি গুহায় উদ্ধার হয়েছে পাইথনটি। স্থানীয়রা তাকে আদর করে নাম দিয়েছেন ‘অজগর দাদা’। তাঁরা বলছেন, মাঝে মাঝে ওই সরীসৃপ বের হয়। এদিকে, ওই সাপ বের হতেই মন্দিরে মন্ত্রোচ্চারণ শুরু হয়। চলে পুজোপাঠ। একফোঁটাও এই সাপকে নিয়ে ভয় পাচ্ছেন না স্থানীয়রা। দেবী হরসিদ্ধি মা হিসাবে এই সাপকে তাঁরা পুজো করছেন। এলাকার বয়স্করা বলছেন, এই পাইথনকে সম্পূর্ণভাবে এলাকায় আগে দেখা যায়নি। মন্দিরের পুরোহিত বলছেন, অজগর দাদা একেবারেই আগ্রাসী নন। তিনি মাঝে মাঝে বের হন মুখ বের করে। আর তাকে পুজো করা হয়। পুরোহিত বলছেন, বহু বছর ধরে এই পুজো হয়ে আসছে। আর ‘অজগর দাদা’কে মনে করা হয় এই মন্দিরের রক্ষাকর্তা। ফলে তাকে দেবজ্ঞানে সকলে পুজো করে থাকেন।

মন্দিরের পুরোহিত বলছেন, মন্দিরের কাউকে কখনওই ক্ষতি করেনি এই পাইথন। স্থানীয়জের দাবি ১০ ফুট দৈর্ঘ এই পাইথনের। আর তা যদি সত্যি হয়, তাহলে এই সাপ অ্যানাকোন্ডার থেকেও বড়। মূলত অ্যানাকোন্ডা ৪ প্রকার।  হলুদ, সবুজ, বলিভিয়ান ও স্পটেড অ্যানাকোন্ডা হয়। আর এই সাপ যদি তার থেকেও বড় হয়, তাহলে তার রীতিমতো তাৎপর্যপূর্ণ।।

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন