বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > লোকায়ুক্ত হিসাবে অসীম রায়ের নাম চূড়ান্ত করল রাজ্য, পাঠানো হচ্ছে রাজভবনে
বিধানসভা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

লোকায়ুক্ত হিসাবে অসীম রায়ের নাম চূড়ান্ত করল রাজ্য, পাঠানো হচ্ছে রাজভবনে

  • তবে এই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠককে প্রহসনের বলে মন্তব্য করে অনুপস্থিত ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

রাজ্যের বিরোধী দলনেতার অনুপস্থিতিতেই নয়া লোকায়ুক্ত নিযুক্ত করল পশ্চিমবঙ্গ। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে লোকায়ুক্ত নিযুক্ত করা হল বাংলায়। সোমবার বিধানসভায় নতুন লোকায়ুক্ত হিসেবে নিযুক্ত হতে চলেছেন প্রাক্তন বিচারপতি অসীম রায়। সর্বসম্মতিক্রমে তাঁর নাম ঠিক করা হয়েছে। তবে রাজ্যপালের কাছে নাম পাঠানো হয়েছে। তিনিই আনুষ্ঠানিকভাবে সিলমোহর দিলেই নিযুক্ত হবেন লোকায়ুক্ত। আজ রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের নামও চূড়ান্ত হয়েছে। তবে এই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠককে প্রহসনের বলে মন্তব্য করে অনুপস্থিত ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

এই নাম চূড়ান্ত করার পর আজ বিধানসভায় অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, কমিটি যে নাম চূড়ান্ত করেছে তাতে রাজ্যপালের সম্মতি জানানো নিয়ম। সংবিধানে সেটাই বলা আছে। এখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের যে নিয়ম সেটাই আমরা মেনে চলি।’‌ এই কমিটির সদস্য হলেন—মুখ্যমন্ত্রী, বিধানসভায় অধ্যক্ষ, বিরোধী দলনেতা এবং পরিষদীয় মন্ত্রী।

এই বৈঠকে যোগ না দেওয়া নিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘‌এটা প্রহসনের বৈঠক। ১৫ মিনিটের ওই বৈঠকে সবকিছু আগে থেকে ঠিক করা আছে। আমাকে কেবল হ্যাঁ–তে হ্যাঁ বলতে হবে। আমি নবান্নে জানিয়েছিলাম, আমাকে প্যানেলের লিস্ট দেওয়া হোক। আমি আগে নাম দেখব। কিন্তু তা দেওয়া হয়নি। তাই আমি বৈঠকে থাকব না। বিষয়টি রাজ্যপালকেও জানিয়েছি। এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ১৫ মিনিটের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে এটা ধরে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নিয়োগে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার এক্তিয়ার রাজ্যপালের রয়েছে। এখনও পর্যন্ত সরকারের প্রস্তাব দেখিনি। তাই প্রয়োজন হলে বিকল্প প্রস্তাব পাঠাব। সংবিধান অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবেন রাজ্যপাল।’‌

রাজ্যপাল এই কমিটিত নিয়োগে সম্মতি দেন কিনা সেটা দেখার বিষয়। কারণ শুভেন্দুর এই মন্তব্যের পর তা আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। রাজ্যপালের সরাসরি নাম না করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌প্রত্যেকের নিজেদের গণ্ডি মেনে চলা উচিত। এর বেশি আমার আর কিছু বলার নেই।’‌ শুভেন্দু অধিকারীর অনুপস্থিতি নিয়েমুখ খুলতে রাজি হননি মুখ্যমন্ত্রী।

বন্ধ করুন