বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বিয়ের পর ডোনাকে নিয়ে রাজস্থান গিয়ে দু' রাত ঘুমোননি সৌরভ, কারণ জানালেন দাদাগিরিতে
ডোনার সঙ্গে রাজস্থান গিয়ে দু'রাত ভুতের ভয়ে ঘুমোতে পারেননি সৌরভ। 
ডোনার সঙ্গে রাজস্থান গিয়ে দু'রাত ভুতের ভয়ে ঘুমোতে পারেননি সৌরভ। 

বিয়ের পর ডোনাকে নিয়ে রাজস্থান গিয়ে দু' রাত ঘুমোননি সৌরভ, কারণ জানালেন দাদাগিরিতে

  • যোধপুরে বউকে নিয়ে গিয়ে দু'রাত ঘুমোতে পারেননি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। কারণ শুনলে চমকে উঠবেন কিন্তু!

বিয়ের পর রাজস্থান গিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে। হানিমুন না, ছিল একটা বিজ্ঞাপনের শ্যুট। আর সেখানে গিয়েই টানা দু' রাত চোখের পাতা এক করেননি। নিজের মুখএই সেকথা স্বীকার করে নিয়েছেন দাদাগিরিতে!

ভাবছেন কী এর কারণ! ভুতের ভয়ে। রাজস্থানের যোধপুরের এক হোটেল, যা আগে কেল্লা ছিল সেখানেই ঘর ছিল দাদার। সে ঘর বিশাল বড়। তবে ওখানে ঢুকেই তিনি বুঝতে পেরেছিলেন এখানে কিছু রয়েছে। ঘরের ভিতর কেউ ঘুরে বেড়ায়। ডোনা ঘুমোলেও চোখের পাতা ফেলতে পারতেন না সৌরভ। এমনকী, প্রথম রাতে নাকি তিনি আর ডোনা টিভি দেখে কাটিয়ে দিয়েছিলেন। 

সৌরভ জানান, শ্যুটের জন্য তিনি ভোর চারটেয় বেরোতেন। ডোনা সব গুছিয়ে দেওয়ার জন্য উঠতেন। কিন্তু তারপর ঘুমোতেন না যতক্ষণ মা বাইরে ভোরের আলো ফুটছে। তারপর জানলা খুলে দিয়ে সকালের আলোয় ঘুমোতে যেতেন। 

দাদাগিরির এই এপিসোডে বিশেষ অতিথি হিসেবে হাজির ছিলেন সোহম চক্রবর্তীও। অভিনেতাও দাদাকে জানান শ্যুটে গিয়ে ভয় পাওয়ার গল্প। পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ের একটি সরকারি বাংলোয় গিয়ে ভুতের অনুভব হয়েছিল। সোহমের কথায়, ‘ঢুকেই গা হা-পা ভারি হয়ে গিয়েছিল। বাথরুম গিয়ে চোখে-মুখে জল দিচ্ছি মনে হচ্ছে পাশে কেউ দাঁড়িয়ে আছে। এরপর আমার সাথে যে ছেলেটি ছিল ওকে রাতে রেখে দিয়েছিলাম। ও পরেরদিন জানিয়েছিল কাউকে একটা ছায়া মতো বাথরুম থেকে বের হতে দেখেছে।’

বন্ধ করুন