বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > NEET: ৫২ বছর বয়সে NEET-এ সফল প্রদীপ, দরিদ্র পড়ুয়াদের কোচিং দেওয়ার স্বপ্ন
প্রদীপ কুমার। 

NEET: ৫২ বছর বয়সে NEET-এ সফল প্রদীপ, দরিদ্র পড়ুয়াদের কোচিং দেওয়ার স্বপ্ন

  • তাদেরকেই তিনি কোচিং দিতে চান। দিল্লির একটি স্কুল থেকে ১৯৮৭ সালে বিজ্ঞান বিভাগে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছিলেন প্রদীপ। তারপরে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক এবং পরবর্তীতে স্কুল অফ ইকোনমিক্স থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।

অদম্য ইচ্ছে থাকলে তাতে বয়স যে কোনও বাধা হয়ে দাঁড়ায় না তা প্রমাণ করে দিলেন গুজরাতের আমেদাবাদ বাসিন্দা প্রদীপ কুমার। মাত্র ছয় মাসের প্রস্তুতি নিয়ে ৫২ বছর বয়সে সফল হলেন মেডিক্যালের সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরীক্ষায় (নিট)। ৯৮.৯৮ পারসেন্টাইল নম্বর পেয়ে নিটে সফল হয়েছেন এই পরীক্ষার্থী। সাধারণত ডাক্তার হওয়ার স্বপ্নেই এই পরীক্ষায় বসেন পরীক্ষার্থীরা। তবে ৫২ বছর বয়সি এই পরীক্ষার্থীর স্বপ্ন কী? তা জানলে আপনিও অবাক হবেন।

বলিউড সিনেমা ‘সুপার থার্টি’ সিনেমার মতোই দরিদ্র বাচ্চাদের ডাক্তারি পড়ার কোচিং দিতে চান প্রদীপ। নিট পাশ করে তিনি এমনটাই জানিয়েছেন। সাধারণত নিট পরীক্ষায় কোনও বেসরকারি ইনস্টিটিউটে কোচিং নিতে গেলে তার খরচ অনেক বেশি পড়ে। যা দরিদ্র পরিবারের পক্ষে বহণ করা সম্ভব হয় না। তাদেরকেই তিনি কোচিং দিতে চান।

দিল্লির একটি স্কুল থেকে ১৯৮৭ সালে বিজ্ঞান বিভাগে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছিলেন প্রদীপ। তারপরে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক এবং পরবর্তীতে স্কুল অফ ইকোনমিক্স থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। ছাত্র জীবন শেষ করার পর একটি ব্যবসায়ী জার্নালের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। তারপর নিজের ব্যবসা শুরু করেন। তার ছেলেও মেডিক্যালের ছাত্র।

প্রদীপ বাবু জানিয়েছেন, নিটের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য থেকে যে মোটা অঙ্কের টাকা নেওয়া হয় তা দরিদ্র মধ্যবিত্তদের নাগালের বাইরে। নিজের ছেলেকেও তিনি কোচিং না করিয়ে বাড়িতেই পড়িয়েছেন। নিট পাশ করার পর এখন তার পরিকল্পনা ছেলে এবং বাবা দুজনে মিলেই তারা দরিদ্র পড়ুয়াদের কোচিং দেবেন। কিন্তু কেন তিনি নিট দিলেন? তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে প্রদীপ বাবু বলেন, ‘অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেন যে আমি নিট পাশ করিনি তাহলে কোন ভরসায় তার কাছে ছেলে মেয়েরা কোচিংয়ের জন্য আসবে!’ তাই ছাত্র-ছাত্রীদের বাবা মায়ের মন থেকে ভয় দূর করার জন্যই তিনি নিট দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, ফেব্রুয়ারি থেকে নিটের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছিলেন।

বন্ধ করুন