বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নদীর ধারে বোম পড়ে রয়েছে, পুলিশকে সতর্ক করলেন যুবক, তারপর যা হল…

নদীর ধারে বোম পড়ে রয়েছে, পুলিশকে সতর্ক করলেন যুবক, তারপর যা হল…

বোম সম্পর্কে পুলিশকে সতর্ক করেছিলেন এক যুবক। প্রতীকী ছবি (PTI Photo) (PTI)

ওই যুবকের নদীর কাছেই স্ন্যাক্সের দোকান রয়েছে। তিনি রোজই পেন ফ্লাইওভারের নীচে নদীতে হাত পা ধুতে যান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি জলের কাছে বোমের মতো জিনিস পড়ে থাকতে দেখেন।এরপর তিনি ছবি তুলে স্থানীয় এক সমাজকর্মীকে পাঠান।

রায়না আসাইনার

নদীর ধারে বোম পড়ে রয়েছে বলে পুলিশকে সতর্ক করেছিলেন ২২ বছর বয়সী এক যুবক। যুবকের কথা শুনে তৎপর হয় পুলিশ। তবে শেষ পর্যন্ত দেখা যায় এগুলি আসল বোমা নয়। তবে যুবকের এই সচেতনতাকে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন রায়গড়ের এসপি সোমনাথ গর্গ। সূত্রের খবর মীতেশ পাতিল নামে নবি মুম্বইয়ের ওই যুবক ভোগবতী নদীর ধারে একটি বোমের মতো দেখতে জিনিস পেয়েছিলেন। এরপরই বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। বোম্ব ডিজপোজাল ও ডিটেকশন স্কোয়াড ঘটনাস্থলে যায়। এরপর দেখা যায় সেটা আসলে বোমা নয়। তবে ওই যুবকের তৎপরতাকে প্রশংসা করেছেন পুলিশকর্তা।

পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, এটা নাগরিকদের সচেতনতার একটি নজির। প্রতিটি নাগরিকের এনিয়ে সচেতন থাকা দরকার। সচেতন নাগরিকই আমাদের কান ও চোখ। তাঁরাই আমাদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য় পৌঁছে দেন। কমিউনিটি পুলিশিংয়ের অঙ্গ হিসাবে আমরা সচেতন নাগরিকদের সবরকমভাবে উৎসাহ দিই। কোথাও কোনও সন্দেহজনক জিনিস দেখলেই তা আমাদের জানানোর ব্যাপারে আমরা পরামর্শ দিচ্ছি।

এদিকে ওই যুবকের নদীর কাছেই স্ন্যাক্সের দোকান রয়েছে। তিনি রোজই পেন ফ্লাইওভারের নীচে নদীতে হাত পা ধুতে যান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি জলের কাছে বোমের মতো জিনিস পড়ে থাকতে দেখেন।এরপর তিনি ছবি তুলে স্থানীয় এক সমাজকর্মীকে পাঠান। এরপর ওই সমাজকর্মী বিষয়টি পুলিশকে জানান। এরপর পুলিশ তাঁকে ডেকে পাঠায়। পরে পুলিশের টিম ঘটনাস্থলে আসে।

পাতিল জানিয়েছেন, বাসিন্দা হিসাবে এটা আমার দায়িত্ব ছিল। সেটাই পালন করেছি।

 

বন্ধ করুন