বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > বার্ষিক স্বাস্থ্য রাশিফল ২০২২: শুরুতে সংক্রমণ, শেষে স্বাস্থ্যলাভ হবে মেষ জাতকদের
জুন মাসে মঙ্গল নিজের লগ্ন রাশিতে উপস্থিত থাকবে, এ কারণে জাতকদের মধ্যে রোগ মোকাবিলার ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি পেতে পারে।
জুন মাসে মঙ্গল নিজের লগ্ন রাশিতে উপস্থিত থাকবে, এ কারণে জাতকদের মধ্যে রোগ মোকাবিলার ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি পেতে পারে।

বার্ষিক স্বাস্থ্য রাশিফল ২০২২: শুরুতে সংক্রমণ, শেষে স্বাস্থ্যলাভ হবে মেষ জাতকদের

রাশির দ্বিতীয় স্থানে রাহু অবস্থিত হওয়ায় প্রথম থেকেই দাঁতের সমস্যা রয়েছে। কিন্তু এই সময়কালে দাঁত তুলতে পারেন বা নতুন দাঁত লাগাতে পারেন।

নতুন বছরের শুরুতে মেষ রাশির জাতকরা সামান্য সমস্যায় পড়তে পারেন। কারণ এ সময় দাঁতে ব্যথা, গলার সংক্রমণ ও চর্ম রোগের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। রাশির দ্বিতীয় স্থানে রাহু অবস্থিত হওয়ায় প্রথম থেকেই দাঁতের সমস্যা রয়েছে। কিন্তু এই সময়কালে দাঁত তুলতে পারেন বা নতুন দাঁত লাগাতে পারেন। ২০২২-এর প্রথম ১৫ দিন আপনার লগ্ন স্থানের অধিপতি অষ্টম স্থানে উপস্থিত থেকে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল করে দেবে। এ সময় ব্যথা, কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপের মতো সমস্যায় গ্রস্ত থাকবেন। আবার এই সময়কালে শারীরিক আঘাত লাগতে পারে। তাই মেষ রাশির জাতকদের সাবধানে গাড়ি চালানোর পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। অষ্টম স্থানে মঙ্গলের সঙ্গে কেতুর যুতির কারণে মেষ রাশির জাতকদের ওষুধ বা চিকিৎসা সরঞ্জামের কারণে কোনও ধরনের রোগ হতে পারে। 

মধ্য জানুয়ারিতে মঙ্গল নবম কক্ষে গোচর করবে, এর ফলে মেষ রাশির জাতকরা স্বাস্থ্যের দিক দিয়ে স্বস্তি পাবেন। তবে মধ্য এপ্রিল পর্যন্ত লাগাতার মুখ, গলা, দাঁত ও শারীরিক দুর্বলতার সমস্যা দেখা দিতে পারে। এর পর রাহু আপনার রাশির প্রথম ও কেতু সপ্তম স্থানে গোচর করবে। এ সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। যার ফলে রোগমুক্ত হওয়ার শক্তি অর্জন করবেন। তবে এ সময়ও সামান্য মাথা ব্যথা, বুকের কষ্ট দেখা দিতে পারে।

জুন মাসে মঙ্গল নিজের লগ্ন রাশিতে উপস্থিত থাকবে, এ কারণে জাতকদের মধ্যে রোগ মোকাবিলার ইচ্ছাশক্তি বৃদ্ধি পেতে পারে। তবে এ সময় লু লাগতে পারে। তাই বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় যথাযথ সাবধানতা অবলম্বন করুন। বছরের শেষে এই গ্রহ দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে গোচর করবে। এ সময় মেষ জাতকরা নিজের অভ্যন্তরে শক্তি অনুভব করবেন। এ সময় নিজের স্বাস্থ্যের যত্ন নেবেন এবং নিয়মিত ব্যায়াম ও খাওয়া-দাওয়ায় সতর্তা অবলম্বন করতে পারেন। এই সময়কালে স্বাস্থ্য সম্পর্কে অধিক চিন্তিত থাকবেন। এর ফলে স্বাস্থ্যোন্নতি হবে, স্ট্যামিনা ও সহ্যশক্তি বাড়বে।

বন্ধ করুন