বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Coochbehar: পরকীয়া সন্দেহে চাবি দিয়ে আঘাত করে স্ত্রীকে খুন! আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা স্বামীর
মৃত গৃহবধূকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে হাসপাতালে। নিজস্ব ছবি।

Coochbehar: পরকীয়া সন্দেহে চাবি দিয়ে আঘাত করে স্ত্রীকে খুন! আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা স্বামীর

  • পঞ্চমীর সঙ্গে নারায়ণের বিয়ে হয়েছিল বেশ কয়েক বছর আগে। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। গত কয়েক মাস ধরেই বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন পঞ্চমী। কোনওভাবে বিষয়টি জানতে পেরে যান নারায়ণ।

পরকীয়ায় জড়িয়েছিলেন স্ত্রী। সেই ক্ষোভে স্ত্রীকে খুন করে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করলেন স্বামী। ঘটনাটি কোচবিহারের পুন্ডিবাড়ি এলাকায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মৃত গৃহবধূর নাম পঞ্চমী সরকার। ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন অভিযুক্ত স্বামী নারায়ণ সরকার।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পঞ্চমীর সঙ্গে নারায়ণের বিয়ে হয়েছিল বেশ কয়েক বছর আগে। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। গত কয়েক মাস ধরেই বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন পঞ্চমী। কোনওভাবে বিষয়টি জানতে পেরে যান নারায়ণ। তাই নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি প্রতিদিন লেগেই থাকত। স্ত্রীকে খুন করার কথা স্বীকার করেছেন নারায়ণ। তার অভিযোগ, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক জানার পর তিনি স্ত্রীকে বহুবার সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু, তারপরেও সেই সম্পর্ক ছিন্ন করেননি তার স্ত্রী। তাই তিনি স্ত্রীকে খুন করে নিজে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেন।

নারায়ণ জানান, ‘কয়েকদিন আগে মায়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল তার স্ত্রী। বাড়ি ফেরার জন্য সেখান থেকে বেলা আড়াইটে নাগাদ বেরিয়েছিল। কিন্তু, তিনি ঘরে ফেরেন রাত নটা নাগাদ।’ তারপরেই তাদের মধ্যে তর্কাতর্কি হতে হতেই নারায়ণ সরকার চাবি দিয়ে তার তার স্ত্রীকে আঘাত করে এবং তার মৃত্যু হয়। এরপর নারায়ণ সরকার নিজে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেন। নারায়ণ সরকারের কথায়, ‘আমি না মারলে ওরা আমাকে খুন করে দিত।’ তাদের দু'জনকেই স্থানীয় এমজিএম হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পঞ্চমীকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। নারায়ণের চিকিৎসা চলছে। ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

বন্ধ করুন