বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Ghatal Incident: জীবিত শিশুকে মৃত ঘোষণা করে ঘাটাল হাসপাতাল, কবর দিতে গিয়ে মিলল শ্বাস

Ghatal Incident: জীবিত শিশুকে মৃত ঘোষণা করে ঘাটাল হাসপাতাল, কবর দিতে গিয়ে মিলল শ্বাস

ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল।

ডেথ সার্টিফিকেট দিয়ে শিশুটিকে মৃত বলে পরিবারের হাতে তুলে দেন চিকিৎসকরা। বাড়ি ফিরে শিশুটিকে কবর দিতে গিয়ে চোখ কপালে ওঠে পরিবারের সদস্যদের। কারণ দেখা যায় দেহে তখনও প্রাণ আছে শিশুটির। শ্বাস–প্রশ্বাস চলছে। তখনই তড়িঘড়ি আবার হাসপাতলে নিয়ে আসা হয়। সরকারি চিকিৎসা পরিষেবার এই অবস্থা দেখে হতবাক ঘাটালবাসী।

জীবিত শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা করে ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল। ডেথ সার্টিফিকেট পর্যন্ত তুলে দেওয়া হল পরিবারের হাতে বলে অভিযোগ। এমনকী শিশুটিকে শেষকৃত্যের জন্য নিয়েও যাওয়া হয়েছিল। কিন্তু তখনই ঘটল চাঞ্চল্যকর ঘটনা। হাসপাতালেই থাকা সদ্যজাত জীবিত শিশুকে মৃত বলে ঘোষণা করার অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু শিশুটির শেষকৃত্য করতে গিয়ে দেখা যায় দেহে প্রাণ আছে। নিঃশ্বাসও নিচ্ছে। এটা দেখেই তাঁর পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফুটে ওঠে। আর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছেন তাঁরা। সদ্যজাত শিশুর দেহ কবর দিতে গিয়ে পরিবারের সদস্যরা এটা টের পেলেন।

এদিকে এই দেখে তৎক্ষণাৎ সেই শিশুকে পুনরায় নিয়ে আসা হয় ঘাটাল হাসপাতালে। ডেথ সার্টিফিকেট দেওয়া সেই জীবিত শিশুটিকে পুনরায় ভর্তি করে চিকিৎসা শুরু করেন চিকিৎসকরা। এমনই নজিরবিহীন ঘটনা ঘটেছে ঘাটাল মহকুমা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। এই ঘটনার পর চিকিৎসকের শাস্তির দাবি তুলে সরব হয়েছেন শিশুটির পরিবার। হাসপাতাল চত্বরে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তাঁরা। এই খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাঁদের শান্ত করে।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ অন্যদিকে শনিবার প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ঘাটাল হাসপাতালে ভর্তি হন মনলিশা খাতুন গড়বেতার এক গৃহবধূ। দুপুরে তিনি একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন। যদিও সেই শিশুটি সময়ের অনেক আগেই হয়েছে বলে দাবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। ওজনও কম ছিল। বিকেলে পরিবারকে জানিয়ে দেওয়া হয় ওই শিশুটি মারা গিয়েছে। ডেথ সার্টিফিকেট দিয়ে রাতে শিশুটিকে মৃত বলে পরিবারের হাতে তুলে দেন চিকিৎসকরা। বাড়ি ফিরে শিশুটিকে কবর দিতে গিয়ে চোখ কপালে ওঠে পরিবারের সদস্যদের। কারণ দেখা যায় দেহে তখনও প্রাণ আছে শিশুটির। শ্বাস–প্রশ্বাস চলছে। তখনই তড়িঘড়ি আবার হাসপাতলে নিয়ে আসা হয়। সরকারি চিকিৎসা পরিষেবার এই অবস্থা দেখে হতবাক ঘাটালবাসী।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ এই ঘটনায় সরকারি চিকিৎসার গাফিলতি নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চান ওই পরিবার। শিশুটিকে আবার আইসিইউ’‌তে ভর্তি করে চিকিৎসা শুরু করা হয়। হাসপাতাল সুপার জানিয়েছেন, পুরো ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষ। হাসপাতালের সুপার সুব্রত দে বলেন, ‘‌বাচ্চাটার জন্মের পর খুবই কম ওজন ছিল। মাত্র ৪৪০ গ্রাম ওজন ছিল। দুপুরে ওকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। সাত ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রেখে তারপর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। তারপর শুনলাম মাটি দিতে গিয়ে শিশুটির পরিবার দেখে দেহে প্রাণ আছে। তারপর ওরা ফের তাকে হাসপাতালে আনে। আমরা ঘটনার কথা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাব।’‌

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

এবার ভারতের সিভিলিয়ান টিম পৌঁছল মলদ্বীপে, সরবে ভারতীয় সেনা IPL-র ‘লড়াই’ ছাপিয়ে হাত মেলাল রিলায়েন্স ও ডিজনি, মিশে গেল Viacom18 ও Star India বাড়ির কর্তার মৃত্যুশোকে ঘরবন্দি ২২ দিন,উদ্ধার করেও হল না শেষরক্ষা,মারা গেল ছেলে ব্যথাতা কাটাতে শাকিবদের নতুন ব্যাটিং এবং বোলিং কোচ নিযুক্ত করল বিসিবি তৃণমূলের ব্রিগেডের দিন শহরে ডার্বিতে মুখোমুখি মোহন-ইস্ট, আদৌ হবে বড় ম্যাচ? ৩৭ বছরে পা দিলেন হেজেল, স্ত্রীর জন্মদিনে বিশেষ শুভেচ্ছা জানিয়ে কী করলেন যুবরাজ ২৫ কেজি ওজন কমেছে, জেলে পড়ে গিয়ে ফেটেছে মাথা, আদালতে জানালেন বালুর আইনজীবী এক দেশ-এক ভোট নিয়ে সংবিধানে যুক্ত হতে পারে নয়া অধ্য়ায়, টার্গেট ২০২৯ নৌকায় ৫ পাকিস্তানি! উদ্ধার ৩,৩০০ কেজির মাদক, গুজরাটে তাবড় অপারেশন, প্রশংসায় শাহ ISL 2023 (Mumbai vs Goa) Live Updates:

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.