বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সাগর দত্ত হাসপাতালে আত্মঘাতী ডেঙ্গি রোগী, বিক্ষোভ পরিজনদের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

সাগর দত্ত হাসপাতালে আত্মঘাতী ডেঙ্গি রোগী, বিক্ষোভ পরিজনদের

  • রোগীর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, বুধবার বিকেলে তাঁদের ফোন করে হাসপাতালে ডাকা হয়। সেখানে গিয়ে তাঁরা জানতে পারেন শৌচাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন রোগী।

সাগর দত্ত হাসপাতালের শৌচাগার থেকে মিলল রোগীর ঝুলন্ত দেহ। যা নিয়ে বুধবার হাসপাতাল চত্বরে উত্তেজনা ছড়ায়। রোগীর পরিবারের অভিযোগ, প্রৌঢ়ের মৃত্যুর পিছনে কোনও রহস্য রয়েছে। বেলঘরিয়া থানার পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

প্রয়াত রোগীর নাম ইন্দ্রজিৎ মান্না (৫৮)। উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরের বাসিন্দা তিনি। কয়েকদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর ডেঙ্গি ধরা পড়ে। বুধবার সকালে তাঁকে স্থানান্তর করা হয় সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে।

রোগীর পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, বুধবার বিকেলে তাঁদের ফোন করে হাসপাতালে ডাকা হয়। সেখানে গিয়ে তাঁরা জানতে পারেন শৌচাগারে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন রোগী। এর পরই হাসপাতালে উত্তেজনা ছড়ায়। রোগীর পরিবারের অভিযোগ, তাঁরা যখন রোগীকে ভর্তি করেছিলেন তখন তিনি মানসিক উদ্বেগে ছিলেন না। স্বাভাবিক ভাবে কথা বলছিলেন। ভর্তির পর তাঁকে স্যালাইন ও অক্সিজেন দেওয়া হয়। এই রকম একজন রোগী কী করে উঠে নিজে শৌচাগারে গেলেন। কেনই বা তিনি আত্মঘাতী হলেন?

ইন্দ্রজিৎবাবুর মৃত্যুর তদন্তের দাবিতে হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন আত্মীয়রা। খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছয় বেলঘরিয়া থানার পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় তারা। নিরপেক্ষ তদন্তের আশ্বাসে শান্ত হন রোগীর আত্মীয়রা।

বন্ধ করুন