বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে সরানোয় বিজেপিতে জোর জল্পনা, তবে কি পদত্যাগ করছেন দিলীপ?
কলকাতা বিমানবন্দরে সুব্রত চট্টোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
কলকাতা বিমানবন্দরে সুব্রত চট্টোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে সরানোয় বিজেপিতে জোর জল্পনা, তবে কি পদত্যাগ করছেন দিলীপ?

  • বুধবার সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে পদ থেকে সরিয়ে দেয় বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ৭ বছর টানা এই পদে ছিলেন তিনি। বিভিন্ন সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠেছে। তবে সব সময় তাঁর হয়ে সওয়াল করেছেন দিলীপ ঘোষ।

দলের সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) পদে রদবদল ঘিরে ফের একবার সরগরম রাজ্যে বিজেপির অন্দরমহল। দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ সুব্রত চট্টোপাধ্যায়তে সরিয়ে অমিতভা চক্রবর্তীকে দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক (সংগঠম)-এর দায়িত্ব দিয়েছে দলের দিল্লির নেতৃত্ব। বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই পদক্ষেপকে কার্যত দিলীপ ঘোষের ডানা ছাঁটার সামিল বলে মনে করছেন ওয়াকিফহাল মহল। এমনকী জল গড়ালে দিলীপবাবু পদত্যাগও করতে পারেন

বুধবার সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে পদ থেকে সরিয়ে দেয় বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ৭ বছর টানা এই পদে ছিলেন তিনি। বিভিন্ন সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠেছে। তবে সব সময় তাঁর হয়ে সওয়াল করেছেন দিলীপ ঘোষ। 

বিজেপি সূত্রের খবর, বেশকিছুদিন ধরে সুব্রতবাবুকে সরানোর পরিকল্পনা করছিল বিজেপি নেতৃত্ব। তবে প্রতিবারই বাধা দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। চলতি মাসে দিল্লিতে দলের বৈঠকেও সুব্রতবাবুকে সরানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা। তেমনটা করলে তিনি ইস্তফা দেবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন দিলীপবাবু। সেই হুঁশিয়ারি অগ্রাহ্য করে শেষ পর্যন্ত সরিয়ে দেওয়া হল সুব্রতবাবুকে। 

সুব্রতবাবুর জায়গায় যে অমিতাভ চক্রবর্তীকে আনা হয়েছে তিনিও RSS-এর ঘরের ছেলে। তবে দিলীপের সঙ্গে তাঁর ঘর সুখের হয় কি না তা দেখার।  তা না হলে ভোটের মুখে দিলীপবাবু পদত্যাগ করলেও আশ্চর্য হওয়ার কিছু থাকবে না।

 

বন্ধ করুন