বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ২০২৩ মার্চ অবধি ডাক্তারদের কোভিড কোটা! রাজ্যের সিদ্ধান্তে স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের

২০২৩ মার্চ অবধি ডাক্তারদের কোভিড কোটা! রাজ্যের সিদ্ধান্তে স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের

কোভিড কোটা নিয়ে নির্দেশিকায় স্থগিতাদেশ হাইকোর্টের । প্রতীকী ছবি। 

সাধারণত প্রত্যন্ত এলাকায় যে সমস্ত সরকারি চিকিৎসকরা ডিউটি করে থাকেন স্নাতকোত্তরে ভর্তির ক্ষেত্রে তাঁদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে থাকে রাজ্য সরকার। একইভাবে যে সমস্ত চিকিৎসকরা কোভিডকালে কঠিন সময়ে ডিউটি করেছিলেন তাঁদের ক্ষেত্রেও বিশেষ সুবিধা দেওয়া হয়েছিল। 

চিকিৎসকদের ‘কোভিড কোটা’ সংক্রান্ত মামলায় রাজ্য সরকারের নির্দেশের ওপর স্থগিতাদেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। গত ৯ অগস্ট স্বাস্থ্য দফতরের তরফে এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। তাতে বলা হয়েছিল, ২০২৩ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসকদের ডিউটিকে কোভিড ডিউটি হিসেবে গণ্য করা হবে এবং সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের সার্ভিস কোটার সুবিধা দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার এই সংক্রান্ত মামলায় বিচারপতি কৌশিক চন্দ রাজ্য সরকারের নির্দেশিকার উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: সুন্দরবনে ‘দুয়ারে ডাক্তার’ শিবির, চিকিৎসা করালেন প্রায় ২ হাজার মানুষ

সাধারণত প্রত্যন্ত এলাকায় যে সমস্ত সরকারি চিকিৎসকরা ডিউটি করে থাকেন স্নাতকোত্তরে ভর্তির ক্ষেত্রে তাঁদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিয়ে থাকে রাজ্য সরকার। একইভাবে যে সমস্ত চিকিৎসকরা কোভিডকালে কঠিন সময়ে ডিউটি করেছিলেন তাঁদের ক্ষেত্রেও বিশেষ সুবিধা দেওয়া হয়েছিল। তবে দেখা যায় কোভিড না থাকা সত্বেও গত ৯ অগস্ট স্বাস্থ্য দফতরের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়। তাতে বলা হয়, এমডি, এমএসে সার্ভিস কোটার ক্ষেত্রে এবছর মার্চ মাস পযর্ন্ত বিভিন্ন হাসপাতালের ডিউটিকে কোভিড ডিউটি হিসেবে গণ্য করা হবে। তা কঠিন ডিউটি হিসেবে ধরে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের সার্ভিস কোটা দেওয়া হবে। সরকারের এই নির্দেশিকায় বিস্ময় প্রকাশ করেন চিকিৎসকরা। তাঁদের প্রশ্ন, কোভিড বছর দেড়েক আগে চলে যাওয়ার পরেও কেন এবছরকে কোভিড ডিউটি হিসেবে গণ্য করা হবে? তাঁরা অভিযোগ তোলেন, বিশেষ কাউকে সুবিধা করে দিতেই হয়ত এই আদেশ জারি করা হয়েছে। বিভিন্ন চিকিৎসক সংগঠন ও তাদের যৌথ মঞ্চ এর প্রতিবাদ জানায়। তারা এই নির্দেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে চিঠিও স্বাস্থ্যসচিবকে দেন। তাঁদের অভিযোগ, এর ফলে শহরে থেকে ডিউটি করা সত্ত্বেও কোভিড সার্টিফিকেট জোগাড় করে বেশ কিছু চিকিৎসক সার্ভিস কোটার সুযোগ পেয়ে যাচ্ছিলেন। এই অভিযোগ তুলে কর্মরত চিকিৎসকদের সংগঠন সার্ভিস ডক্টরস ফোরাম কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়।

তাদের অভিযোগ, স্বাস্থ্য দফতর অনৈতিকভাবে কিছু জনকে কোভিড কোটা দেওয়ার ফলে প্রকৃত অর্থে প্রত্যন্ত এলাকায় কাজ করা চিকিৎসকরা সার্ভিস কোটা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। স্বাস্থ্য দফতরের এই নির্দেশিকাকে চ্যালেঞ্জ সংক্রান্ত মামলার আজ শুনানি হয় হাইকোর্টে। সেই সংক্রান্ত মামলায় স্থগিতাদের দিয়েছে হাইকোর্ট। সার্ভিস ডক্টরস ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ডা:সজল বিশ্বাস বলেন, ‘হাইকোর্টের এই নির্দেশের ফলে প্রকৃত অর্থে গ্রামে গঞ্জে পড়ে থাকা চিকিৎসকদের স্বার্থ রক্ষা হল। তথা গ্রামের মানুষের চিকিৎসার বঞ্চনার যে সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল মানুষ তার থেকে মুক্ত হল।’

বাংলার মুখ খবর

Latest News

মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে বৃহস্পতিবার? জানুন রাশিফল প্রায় ৬ মাস পরে DA মামলা উঠলেও ১টা 'ভালো খবর' আছে, ব্যাখ্যা নেতার, কী লাভ হবে? রিয়ালের সঙ্গে ২০২৫ পর্যন্ত চুক্তি বাড়িয়ে নিলেন ক্রোয়েশিয়ার তারকা লুকা মদ্রিচ ‘ডিভোর্স সোজা নয়…’, বিচ্ছেদ ভাবনা ঘিরে ধরেছে অভিষেককে, ঐশ্বর্যর সংসারে চিড়! টিমম্যান অশ্বিনের চালে বাজিমাত ড্রাগনসের, TNPL-এ দুরন্ত মাইলস্টোন ইন্দ্রজিৎ-এর ওমানের উপকূলে ডুবে যাচ্ছিল জাহাজ,৮ ভারতীয় সহ ৯ নাবিককে উদ্ধারে ভারতের নৌবাহিনী ৬ ঘণ্টা গুলির লড়াই, গড়চিরোলিতে ১২ মাওবাদীকে নিকেশ করল বাহিনী ‘রাত সাড়ে ১২টায় মুকেশ আম্বানির সাথে দেখা…’, কলকাতার ছেলের ছোঁয়ায় সাজল বিয়ের আসর 'সবকা সাথ' নিয়ে সাফাই শুভেন্দুর, সংখ্যালঘু মোর্চা বন্ধের কথা সুকান্ত বললেন …… ন্যূনতম ১০০০০ টাকা! রাজ্য সরকারি কর্মীদের বেতন কতটা বাড়বে? রইল হিসাব, পেনশন কত?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.