বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ১০ শতাংশ কমিশন পেয়েছি, জেরায় জানালেন কুন্তল, বাকি ৯০ শতাংশ গেল কোথায়?

১০ শতাংশ কমিশন পেয়েছি, জেরায় জানালেন কুন্তল, বাকি ৯০ শতাংশ গেল কোথায়?

সিজিও কমপ্লেক্সে কুন্তল ঘোষ।

রাতভর জেরার পর ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় কুন্তল জানিয়েছেন, শিক্ষ নিয়োগের জন্য নেওয়া টাকার মাত্র ১০ শতাংশ কমিশন পেয়েছেন তিনি। বাকি ৯০ শতাংশ নিয়েছেন অন্য কেউ। 

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে যুব তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুন্তল ঘোষকে জেরা করে বিস্ফোরক তথ্য পেল ইডি। গোয়েন্দাদের দাবি, জেরায় কুন্তল স্বীকার করেছেন, তিনি টাকা নেননি। টাকা নিয়েছেন অন্য কেউ। কুন্তল নিজে ১০ শতাংশ কমিশন পেয়েছেন মাত্র। এমনকী কোন ক্ষেত্রে মোট কত করে ঘুষ নেওয়া হয়েছে তাও জানিয়েছেন কুন্তল। তার প্রতিটি সংখ্যাই চমকে দেওয়ার মতো।

শনিবার সকালে কুন্তলকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা। বিকেলে তাঁকে আদালতে পেশ করে ইডির আইনজীবী জানান, ১৯ কোটি নয়, কুন্তলের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে ৩০ কোটির হিসাব। সেই টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন কুন্তল। এর পরই কুন্তলকে ১৪ দিনের ইডি হেফাজতে পাঠায় আদালত।

রাতভর জেরার পর ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় কুন্তল জানিয়েছেন, শিক্ষ নিয়োগের জন্য নেওয়া টাকার মাত্র ১০ শতাংশ কমিশন পেয়েছেন তিনি। বাকি ৯০ শতাংশ নিয়েছেন অন্য কেউ। তবে সেটা কে তা এখনো প্রকাশ্যে আনেনি ইডি। তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, জেরায় কুন্তল জানিয়েছেন, প্রাথমিকে চাকরির জন্য মোট ১০ কোটি ৪৮ লক্ষ টাকা, আপার প্রাইমারির জন্য ৩০ কোটি ৩১ লক্ষ টাকা ও ২০১৪ সালের টেট পাশ করানোর জন্য মোট ৩ কোটি ২৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা আদায় করা হয়েছিল। এছাড়া নবম – দশম, একাদশ – দ্বাদশে শিক্ষক নিয়োগ ও গ্রুপ ডি ও গ্রুপ সি নিয়োগের জন্য বেশ কিছু টাকা ঘুষ আদায় হয়।

তদন্তকারীরা জানাচ্ছেন, কুন্তলের কাছ থেকে আরও বেশ কয়েকজনের নাম পাওয়া গিয়েছে। যাদের কাছে গিয়েছে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির টাকা। এখন তাদের ব্যাপারে বিস্তারিত জানার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন গোয়েন্দারা।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন