উপাচার্যের ঘরের সামনে বসে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা
উপাচার্যের ঘরের সামনে বসে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা

দাবি না মানা পর্যন্ত চলবে ঘেরাও, তৃতীয় দিনে জানালেন প্রেসিডেন্সির ছাত্ররা

  • বুধবার ১৫তম দিনে পড়ল পড়ুয়াদের আন্দোলন। সোমবার থেকে তাঁরা উপাচার্যের ঘরের সামনে বসে তাঁকে ঘেরাও করে রেখেছেন।

তৃতীয় দিনেও জারি প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের ঘেরাও। সোমবার থেকে উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়াকে ঘেরাও করে রেখেছেন তাঁরা। ছাত্র সংসদের তরফে জানানো হয়েছে, হিন্দু হস্টেল ফেরত দেওয়া-সহ উপাচার্যের কাছে সাত দফা দাবি পেশ করা হয়েছে। তার একটারও জবাব দেননি উপাচার্য। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ঘেরাও চলবে।

বুধবার ১৫তম দিনে পড়ল পড়ুয়াদের আন্দোলন। সোমবার থেকে তাঁরা উপাচার্যের ঘরের সামনে বসে তাঁকে ঘেরাও করে রেখেছেন। রাতে বারান্দাতেই শুয়ে থাকছেন তাঁরা। মঙ্গলবার কাকভোরে পড়ুয়ারা যখন ঘুমিয়ে তখন চুপিচুপি বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়েন উপাচার্য। তবে দুপুরে আবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেরত আসেন তিনি। এর পর নজরদারি আরও বাড়িয়েছেন পড়ুয়ারা। ভিসি ম্যাডাম যেন ফের পালাতে না পারেন সেদিকে অষ্টপ্রহর নজর রেখেছেন তাঁরা।

ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক সৌরেন মালিক জানিয়েছেন, ‘আমরা প্রথমে চার দফা দাবি নিয়ে আন্দোলন শুরু করেছিলাম। পরে আরও ৩ দফা দাবি যোগ হয়েছে। এর মধ্যে হিন্দু হস্টেলের বাকি তলাগুলি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি রয়েছে। তাছাড়া হিন্দু হস্টেল থেকে যে সব কর্মীদের বদলি করা হয়েছে তা বাতিলের দাবিও তুলেছি আমরা।’ বলে রাখি, প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ এসএফআইয়ের দখলে।

সৌরেন জানান, ‘উপাচার্যকে ৭টি স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোনওটারই জবাব দেননি তিনি। আমাদের সঙ্গে কথা বলতেই রাজি নন উনি। তাই দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা নড়ছি না। ওর ইচ্ছা করলে আমাদের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যেতে পারেন। আমরা আটকাবো না।’



বন্ধ করুন