ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ত্রাণের কাজে ঝাঁপিয়ে পড়তে বললেন ধনখড়, তবে টুইটে বাংলা বানান রয়ে গেল ভুল

  • বুধবার সন্ধ্যায় কলকাতার ওপর দিয়ে বয়ে গিয়েছে আমফান। ফলে তার তেজ টের পেয়েছেন রাজ্যপালও।

বুধবার দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকার ওপর দিয়ে বয়ে গিয়েছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। যার জেরে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অন্তত ৫টি জেলা। ঝড়ের জেরে মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এখনো বিস্তীর্ণ এলাকা থেকে আসছে ক্ষয়ক্ষতির খবর। এরই মধ্যে টুইট করে রাজ্যবাসীকে ‘সর্বব্যাপী ত্রাণের কাজে ঝাঁপিয়ে পড়তে’ নির্দেশ দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তবে রাজভবন থেকে বাংলায় করা সেই টুইটে রয়ে গেল বানান ভুল। 

টুইটে রাজ্যপাল লিখেছেন, ‘আমফানের প্রকোপে যে প্রাণহানি ঘটেছে বা সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে তার জন্যে আমি মর্মাহত । আমি গত কয়েকদিন ধরে ক্রমাগত বিভিন্ন এজেন্সির সাথে সম্পর্ক  রেখে চলেছিলাম। তাদের দায়িত্ববোধ  ফলে ন্যুনতম ক্ষতি হয়েছে। তবু এটি একটি  বিনাশকারী ছাপ রেখে গেছে যা বহু দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ। এখন প্রত্যেককে সর্বব্যাপী ত্রাণের কাজে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।‘

বুধবার সন্ধ্যায় কলকাতার ওপর দিয়ে বয়ে গিয়েছে আমফান। ফলে তার তেজ টের পেয়েছেন রাজ্যপালও। ওদিকে সেদিন সন্ধ্যায় নবান্নের কন্ট্রোল রুম থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও ক্ষয়ক্ষতির জন্য আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। সঙ্গে ক্ষতিপূরণ বাবদ কেন্দ্রীয় সাহায্যের প্রত্যাশা যে তিনি করেন তাও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের টুইটে যদিও এব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেননি রাজ্যপাল।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজভবন থেকে বাংলায় করা এই টুইটে রয়েছে বানান ভুল। টুইটে ‘ন্যূনতম’ বানানটি ভুলবশত ‘ন্যুনতম’ লেখা হয়েছে। রাজভবন থেকে প্রকাশিত কোনও লিখিত বার্তায় যা এক বিরল ঘটনা। 

 

বন্ধ করুন