বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > আমার বাড়িটাও দিয়ে দিতে পারি- করোনার জন্য সেফ হোম সেন্টার চালু করে বললেন মুখ্যমন্ত্রী
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (PTI)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (PTI)

আমার বাড়িটাও দিয়ে দিতে পারি- করোনার জন্য সেফ হোম সেন্টার চালু করে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

খুব অসুস্থ নন যারা, তারা থাকবেন এই সেফ হোম সেন্টারে। 

যারা করোনায় আক্রান্ত কিন্তু তেমন অসুস্থ নন, তাদের জন্য সেফ হোম সেন্টার চালু করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। বুধবার এই কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন যে এখানে চিকিত্সকরা দিনে দুই বার করে আসবেন, রোগীদের হালহকিকত্ জানার জন্য। শুধু যারা প্রচন্ড অসুস্থ, তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হবে, বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। 

 এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে সারা রাজ্য জুড়ে ১০৪টি সেফ হোম সেন্টার চালু হবে। কেসের সংখ্যা আরও বাড়লে সেফ হোম সেন্টার আরও খোলা হবে, সে কথা বলেন তিনি। এখানে বাড়ির খাওয়া মিলবে। দুই বেলা ডাক্তাররা ভিজিট করবেন। প্রয়োজনে নিজের বাড়িটিও তিনি এই কাজে দিয়ে দিতে পারেন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। 

বহু জায়গায় বেডের আকালের অভিযোগ আসছে। এই বিষয় স্বচ্ছতার জন্য এবার থেকে ঘণ্টায় ঘণ্টায় সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে জানাতে হবে খালি বেডের সংখ্যা। 

বেসরকারি নার্সং হোমগুলি যেরকম আকাশচুম্বী চার্জ নিচ্ছে, সেই নিয়ে বৃহস্পতিবার বৈঠক হবে বলে তিনি জানান। 

পুলিশ, ডাক্তার, আশা কর্মী, মিউনিসিপাল কর্মী, আশা কর্মী যারা কোভিড যোদ্ধা তাদের অতিরিক্ত অর্থ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে রাজ্য সরকার। ডিফিকাল্ট এরিয়ায় কাজ করলে রাজ্য সরকারি কর্মীরা যে ইনসেনটিভ পান, এবার থেকে কোভিড যোদ্ধারাও সেই টাকা পাবেন। 

এবার থেকে ফাইনাল বর্ষের মেডিক্যাল ও নার্সিং পড়ুয়াদেরও কোভিড লড়াইতে কাজে লাগানো হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। 

 

বন্ধ করুন