বাংলা নিউজ > কর্মখালি > ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে দ্বাদশে অঙ্ক, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন বাধ্যতামূলক নয় : AICTE
ফাইল চিত্র : হিন্দুস্তান টাইমস (HT file) (HT file)
ফাইল চিত্র : হিন্দুস্তান টাইমস (HT file) (HT file)

ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে দ্বাদশে অঙ্ক, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন বাধ্যতামূলক নয় : AICTE

 স্নাতক স্তরে ভর্তির জন্য যোগ্যতার ক্ষেত্রে কিছু পরিবর্তন হয়েছে।

স্নাতক স্তরে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে ক্লাস টুয়েলভে অঙ্ক, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন বাধ্যতামূলক নয়। এমনই নয়া নীতি আনল অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিকাল এডুকেশন (AICTE)। বি.ই ও বিটেক কোর্সের ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য বলে জানিয়েছে AICTE ।

 বলা হয়েছে সবকটি অপশনাল বিষয়ের মধ্যে অঙ্ক ও ফিজিক্স-ও থাকছে। অপশনালের মধ্যে ক্লাস টুয়েলভে যে কোনও ৩টি বিষয় থাকলেই ভর্তি হওয়া যাবে স্নাতক স্তরের ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে।

সেই অপশনাল বিষয়গুলি কী কী?

১. পদার্থবিদ্যা

২. গণিত

৩. রসায়ন

৪. কম্পিউটার সায়েন্স

৫. ইলেকট্রনিক্স

৬. তথ্য প্রযুক্তি

৭. ইনফর্ম্যাটিক্স প্র্যাকটিসেস

৮. বায়োটেকনোলজি

৯. টেকনিকাল ভোকেশনাল বিষয়

১০. কৃষিবিদ্যা

১১. ইঞ্জিনিয়ারিং

১২. গ্রাফিক্স

১৩. বিজনেস স্টাডিজ

১৪. এন্ত্রেপ্রেনিউরশিপ

এর ফলে কোনও ছাত্র ক্লাস টুয়েলভে ফিজিক্স নিয়ে তার সঙ্গে গণিত নাও নিতে পারেন। আবার উল্টোটাও হতে পারে। কোনটিও নাও থাকতে পারে। তবুও ইঞ্জিনিয়ারিং-এ ভর্তিতে সেটা কোনও বাধা হবে না। শুক্রবারের বিবৃতিতে AICTE জানায়, ন্যাশানাল এডুকেশন পলিসি কার্যকরী করার লক্ষ্যেই এই নতুন সিদ্ধান্ত।

স্কুল স্তরে বিষয় ও শিক্ষার গন্ডি ভেঙে দেওয়ার কেন্দ্রের সিদ্যান্ত মেনেই এই ধরণের প্রচেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। তবে, নয়া নিয়মের তাত্পর্য নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তির জন্য প্রবেশিকায় এমনিতেই গণিত, পদার্থবিদ্যা ও রসায়ন থাকে। সেক্ষেত্রে এমনিতেও এই বিষয়গুলি ছাত্রছাত্রীদের পড়তেই হবে। তাছাড়া তামিলনাড়ুর মতো কোনও কোনও রাজ্যে সরাসরি ক্লাস টুয়েলভের নম্বরের ভিত্তিতে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তি নেওয়া হয়। সেক্ষত্রে আগে গণিত, পদার্থবিদ্যা না করা থাকলে ভিত দূর্বল হওয়ার আশঙ্কা করছেন শিক্ষাবিদরা।তবে এই প্রস্তাব ভবিষ্যতের জন্য। আগামী শিক্ষাবর্ষেই এটা চালু হবে না। 

তবে, এই নিয়ে বিতর্ক শুরু হতেই মুখ খুলেছে AICTE । কোনও বিশ্ববিদ্যালয় এই নিয়ম প্রয়োগ করতে চাইলে তবেই তা লাগু হবে। অর্থাত্ জোর করে এই নিয়ম চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে না বলে জানিয়েছে AICTE। অর্থাত্ নয়া নীতি প্রয়োগ করে ভর্তি নেওয়া হবে কিনা, সেই সিদ্ধান্ত এখন বিশ্ববিদ্যালয়গুলির হাতে।

বন্ধ করুন