বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Dharmendra-Sunny: কাজের লোককে গালমন্দ করে বিপাকে ধর্মেন্দ্র! ছেলেকে ‘সবক’ শেখান সানির ঠাকুমা

Dharmendra-Sunny: কাজের লোককে গালমন্দ করে বিপাকে ধর্মেন্দ্র! ছেলেকে ‘সবক’ শেখান সানির ঠাকুমা

সানির জীবনে ব্যাপক ছাপ রেখেছেন তাঁর ঠাকুমা 

Dharmendra-Sunny: বাড়ির কাজের লোকের উপর চোটপাট করেন ধর্মেন্দ্র, শোনান কটূকথা। এতেই মেজাজ হারান সানির ঠাকুমা। ছেলেকে উচিৎ শিক্ষা দিতে কী করেছিলেন তিনি? জানলে অবাক হবেন! 

বক্স অফিসে এখনও রাজত্ব চলছে সানির ‘গদর ২’-এর। ৫০০ কোটির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়েও শিকড়ের সঙ্গে জুড়ে থাকার কথা সানির মুখে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের ঠাকুমার কথা স্মরণ করে আবেগপ্রবণ সানি। পর্দার ‘হি-ম্যান’ ধর্মেন্দ্রও বাড়িতে মায়ের ভয়ে জুজু হয়ে থাকতেন! ‘দাদি’র মুখের উপর কথা বলার সাহস পরিবারের কারুর ছিল না, জানান সানি। সমাজ মাধ্যম প্রভাবী রণবীর আল্লাহবাদিয়ার পডকাস্টে গদর ২ তারকা নিজের ঠাকুমাকে ঘিরে ছেলেবেলার স্মৃতি ভাগ করে নেন। 

সানি জানান, ‘যখন সদ্য যৌবনে পা দিচ্ছি, আমি আমার ঠাকুমার খুব কাছের ছিলাম, আমার উপর ওঁনার খুব প্রভাব রয়েছে। উনি খুব দানশীল মহিলা ছিলেন। প্রয়োজনে নিজের পরিবারের মানুষজনকেও বকাবকি করতে ছাড়তেন না যখন তাঁর মনে হত ভুলটা তাঁদের’। এরপর এক ঘটনার কথা ফাঁস করেন সানি। জানান, একবার তাঁর বাবা বাড়ির এক কাজের লোককে গালিগালাজ করছিলেন। যা শুনে ফেলেন সানির ঠাকুমা। এরপর রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন তিনি। সানির কথায়, ‘বিজি (ঠাকুমা) এরপর ওই কাজের লোককে ডেকে পাঠায় আর নির্দেশ দেয় বাবাকে পালটা গালমন্দ করার। উনি এই ধরণেরই মানুষ ছিলেন’। 

সানি জানান, তাঁর ঠাকুমা-দাদু, মা সকলেই তাঁকে জীবনের সঠিক আদর্শ শিখিয়ে বড় করে তুলেছে। সানি বলেন, ‘একটা বাচ্চা কেমন হবে তা সম্পূর্ণরূপে নির্ভরশীল তার পরিবারের উপর’। ধর্মেন্দ্রর হাতে কি কখনও মার খেয়েছেন সানি? অভিনেতা অকপটে জবাব দেন একবারই দুষ্টুমি করার জেরে তাঁকে কষিয়ে চড় মেরেছিলেন ধর্মেন্দ্র। সানির গালে তিন আঙুলের ছাপ পড়ে গিয়েছিল। এরপর ফের ছেলের উপর রেগে কাঁই হন সানির ঠাকুমা। 

ধর্মেন্দ্র ও তাঁর প্রথম পক্ষের স্ত্রী প্রকাশ কৌরের চার সন্তান। সানিই সবচেয়ে বড়। প্রকাশকে ডিভোর্স না দিয়েই হেমা মালিনীকে বিয়ে করেছিলেন অভিনেতা। সালটা ১৯৮০। এরপর কেটে গিয়েছে চার দশক। আজও ধর্মেন্দ্রর পৈতৃক ভিটেতে ঢোকবার অনুমতি নেই হেমার। এত বছরেও মুখোমুখি দাঁড়াননি ধর্মেন্দ্রর দুই স্ত্রী। কিন্তু তাঁদের সন্তানের মধ্যেকার সম্পর্ক এখন অনেকটা সহজ। সানির গদর ২-এর স্পেশ্যাল স্ক্রিনিং আয়োজন করেছিলেন তাঁর সৎ বোন এষা। হেমাও পৌঁছেছিলেন হলে গদর ২ দেখতে। সানির পারফর্ম্যান্সে মুগ্ধ তিনিও। 

প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত (২১ দিনে) দেশের বক্স অফিসে গদর ২-এর আয় ৪৮১.৮৫ কোটি। ৫০০ কোটির এলিট ক্লাব থেকে মাত্র ১৮ কোটি টাকা দূরে এই ছবি। ‘জওয়ান’ মুক্তিতে এখনও বাকি ৬ দিন। চলতি সপ্তাহেই ৫০০ কোটির গণ্ডি পার করবে এই ছবি, আশা তেমনটাই। 

 

বন্ধ করুন