বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বিজ্ঞাপনে কন্যাদানের বিরোধী আলিয়া! ক্ষেপে উঠে তীব্র ভাষায় আক্রমণ কঙ্গনার
কঙ্গনা-আলিয়া
কঙ্গনা-আলিয়া

বিজ্ঞাপনে কন্যাদানের বিরোধী আলিয়া! ক্ষেপে উঠে তীব্র ভাষায় আক্রমণ কঙ্গনার

  • 'হিন্দুধর্মের বিরুদ্ধে প্রচার বন্ধ করো', আলিয়ার বিজ্ঞাপনে নিয়ে মন্তব্য বলি কুইনের। ‘কন্যাদান’ বির্তকে আলিয়া ভাটকে নয়া বিজ্ঞাপন নিয়ে তীব্র ভাষায় আক্রমণ কঙ্গনার।

তিনি মুখ খুললেই নাকি বিতর্কের সৃষ্টি হয়! তাই বিতর্কের আরেক নাম কঙ্গনা রানাওয়াত বলাই যায়। কন্যাদান নিয়ে সদ্য নতুন এক বিজ্ঞাপন করেছেন অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। বিজ্ঞাপনে ব্রাইডাল পোশাক ব্র্যান্ডের জন্য, আলিয়া এমন এক কনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন- যে ভারতীয় বেশ কিছু বিয়েতে 'কন্যাদান' রীতির সঙ্গে সহমত পোষণ করে না।

এবার সেই বিজ্ঞাপনকে কটাক্ষ করে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন কঙ্গনা। ট্যাগ করেছেন আলিয়া এবং সেই বস্ত্র-বিপণী সংস্থাকে। বলি কুইনের মন্তব্যে উঠে এসেছে, বিজ্ঞাপনটি নাকি ক্রেতাদের 'উপর বেশি করে প্রভাব ফেলার' চেষ্টা করছে। অভিনেত্রীর দাবি, সেই সংস্থা ধর্ম এবং সংখ্যালঘু রাজনীতিকে তাঁদের সুবিধার জন্য ব্যবহার করছে। ভিডিয়ো পোস্ট করে ক্যাপশনে অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘সব ব্র্যান্ডের কাছে বিনীত অনুরোধ….. পণ্য বিক্রি করতে ধর্ম, সংখ্যালঘু, সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজনীতির ব্যবহার করবেন না…। চালাকি করে বিভাজনমূলক ধারণা এবং বিজ্ঞাপন দিয়ে নিরীহ ভোক্তাদের সঙ্গে কারচুপি করা বন্ধ করুন... #mohey @aliaabhatt @moheyfashion @stylebyami’।

অভিনেত্রীর শেয়ার করা নোটে লেখা রয়েছে, ‘আমরা প্রায়শই সীমান্তে শহীদ হওয়া বীরের বাবাদের টেলিভিশনে দেখতে পাই। যাঁরা নিজের সন্তানদের বর্ডারে ছেড়ে দেন এবং ছেলে শহীদ হওয়ার পর গর্জে ওঠেন আমার আরও একটি ছেলে আছে বলে… ওঁনার দান আমি এই মাতৃভূমিকে দেব… কন্যাদান হোক অথবা পুত্রদান। যেভাবে সমাজ মূলে গিয়ে ত্যাগের এই ধারণাকে মূল্য় দেয়… তাঁদের দানের ধারণাটিকে আরও গভীরে গিয়ে দেখা শুরু করতে হবে। তাহলে আপনার মনে হতেই পারে রাম রাজ্যকে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করার কথা। যে রাজা তাঁর সবকিছু ত্যাগ করেছিলেন শুধুমাত্র সন্ন্যাসী হিসেবে জীবন যাপনের জন্য, দয়া করে হিন্দুদের এবং তাঁদের আচার -অনুষ্ঠানকে উপহাস করা বন্ধ করুন। পৃথিবী এবং নারী উভয়েই শাস্ত্রে মাতা, তাঁদের দেবী হিসাবে পুজো করা হয়... এগুলোকে মূল্যবান এবং শক্তির উৎস হিসেবে দেখতে দোষের কিছু নয়’। এইধরণের বিজ্ঞাপনকে বয়কট করে তাঁদের চুপ করে থাকার বার্তাও দিতে দেখা গেছে অভিনেত্রীকে।

প্রসঙ্গত, বিজ্ঞাপনটিতে আলিয়াকে মণ্ডপে হবু বরের সঙ্গে বসে থাকতে দেখা গেছে কনের সাজে। নায়িকার বার্তা নিয়মের বেড়াজাল ভেঙে মনের মধ্যে কী রয়েছে তা সকলকে জানানো। আলিয়ার বক্তব্যে প্রকাশ পেয়েছে ‘কন্যাদান নয়! কন্যামান!’ ভিডিয়োতে অভিনেত্রী তাঁর পরিবারের প্রতিটি সদস্য-দাদী, বাবা এবং মা তাঁকে কতটা ভালবাসেন তা উল্লেখ করেছেন। এরপরই বিয়েতে কন্যাদান নিয়ে একটি অভ্যন্তরীণ আপত্তিও প্রকাশ করেছেন।

তিনি ভিডিয়োতে প্রশ্ন করেন, কেন তাঁর পরিবার সর্বদা তাকে 'অন্য' এবং পরিবারের অস্থায়ী অংশ হিসাবে বিবেচনা করে! যদি তাঁকে এতটা ভালবেসে থাকে? নিজেকেই অভিনেত্রী প্রশ্ন করেন, ‘আমি কি দান করার মতো জিনিস? কেন শুধু কন্যাদান?’

এই প্রথম নয়, এর আগেও আলিয়ার কাজ নিয়ে কঙ্গনাকে কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছিল। হিন্দুধর্মের চিরাচরিত রীতিকে প্রশ্নের মুখে ফেলায় আলিয়াকে কটাক্ষ করেন বলি কুইন। পাশাপাশি কঙ্গনার দাবি, হিন্দু ধর্মকে অসম্মান করেছেন আলিয়া ভাট।

 

বন্ধ করুন