বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Rani Mukherji: ‘যাও গিয়ে মুখ ধুয়ে আসো’, রানিকে দেখেই সেটে বলে উঠেছিলেন পরিচালক! কী হয়েছিল?
‘যাও মুখ ধুয়ে আসো’, রানিকে বলেছিলেন কমল হাসান হে রাম ছবির সেটে। 

Rani Mukherji: ‘যাও গিয়ে মুখ ধুয়ে আসো’, রানিকে দেখেই সেটে বলে উঠেছিলেন পরিচালক! কী হয়েছিল?

  • হে রাম ছবির সেটে কমল হাসানের কাছ থেকে একথা শুনে চমকে উঠেছিলেন রানি। বিনা মেকআপে ক্যামেরার সামনে এসেছিলেন অভিনেত্রী সেই ছবিতে।

মেকআপ ছাড়া ক্যামেরার সামনে আসতে চান না বেশিরভাগ তারকাই। তবে একথা শুনলে হয়তো অবাক হবেন, বিনা মেকআপে শ্যুট করতে হয়েছিল রানি মুখোপাধ্যায়কে। মেকআপ ধুয়ে ক্যামেরার সামনে যেতেন তিনি। 

ছবির নাম ‘হে রাম’। ২২ বছর আগে এই সিনেমা বক্স অফিসে আলোড়ন ফেলেছিল। সমালোচকদের কাছ থেকে বহুল প্রশংসিত হয়েছিল এই ছবি। আর এই সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে ছিলেন রানি, সিনেমায় তাঁর নাম অপর্ণা রাম। রানি বহুবার জানিয়েছেন এই সিনেমায় কাজ তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি বদলে দিয়েছিল। ছবির পরিচালনা করেছিলেন কমল হাসান। 

এক সাক্ষাৎকারে রানি জানান, সেটে আসার পর কমল তাঁকে দেখে প্রথমেই বলে উঠেছিল, যাও গিয়ে মুখ ধুয়ে আসো। প্রথমে রানি গিয়ে হালকা করে মুখে জল লাগিয়ে চলে আসেন। কিন্তু সেটা বুঝতে পেরেই কমল জানান, রানিকে মুখ ধুতে হবে সাবান দিয়ে। প্রথমে তো নিজের কানকেই বিশ্বাস করতে পারেননি রানি। বারবার প্রশ্ন করতে থাকেন কমলকে। অবশেষে পুরো মেকআপ তুলে বেরিয়ে আসেন বাথরুম থেকে। আর তাঁকে দেখেই কমল হাসান চিৎকার করে ওঠে, ‘এই তো আমার অপর্ণা’। 

রানি সেই সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘তখন আমি বুঝতে পেরেছিলাম তুমি মেকআপ ছাড়াও ক্যামেরার সামনে যেতে পারো। যদি তোমার মধ্যে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর মতো দৃঢ়তা থাকে। আর তোমার লুক পুরোটাই নির্ভর করবে ক্যামেরার অ্যাঙ্গেল, লাইটের উপরে।’

রানি অন্য আরেক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘হে রামের সেটে থাকার প্রতিটা মুহূর্ত আমি ইপভোগ করতাম। একটা আলাদাই নিয়মনুবর্তিতা ছিল সেটে। টেক শুরু হওয়ার আগে বেল বাজত একটা। মেকআপ নিয়ে, চুল নিয়ে ভাবতে হত না।’

রানি জানিয়েছিলেন সকাল ৬টায় শুরু হত শ্যুট। আর একদম সময়েই তা শেষ করে দিত। কোনও শট বাকি থাকলেও রোজ একই সময়ে শেষ হত। পরেরদিন সেই বাদবাকি কাজটা করা হত। অভিনেত্রী জানান, আত্মবিশ্বাসের যে পাঠ তিনি কমলের থেকে পেয়েছিলেন তা আজও তাঁকে সাহায্য করে। 

 

বন্ধ করুন