বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মধ্যপ্রদেশকে বেশি অক্সিজেন, দিল্লিকে নয় কেন, কেন্দ্রকে প্রশ্ন দিল্লি হাইকোর্টের
মধ্যপ্রদেশকে বেশি অক্সিজেন, দিল্লিকে নয় কেন, কেন্দ্রকে প্রশ্ন দিল্লি হাইকোর্টের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
মধ্যপ্রদেশকে বেশি অক্সিজেন, দিল্লিকে নয় কেন, কেন্দ্রকে প্রশ্ন দিল্লি হাইকোর্টের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

মধ্যপ্রদেশকে বেশি অক্সিজেন, দিল্লিকে নয় কেন, কেন্দ্রকে প্রশ্ন দিল্লি হাইকোর্টের

  • যদি কোনও ব্যক্তি জরুরি ভিত্তিতে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেশি দামে অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনেও থাকে, তাহলেও যেন সেই সিলিন্ডার বাজেয়াপ্ত না করা হয়।

মধ্যপ্রদেশকে বেশি অক্সিজেন দিলে, দিল্লিকে কেন নয়? দিল্লিতে অক্সিজেন সংকট যখন তীব্র আকার নিচ্ছে, তখন কেন্দ্রকে এই প্রশ্নই করল দিল্লি হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রের অক্সিজেন সরবরাহ নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল্লি হাইকোর্ট জানায়, আদালত এই কথা বলছে না যে দেশের প্রান্তের মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হোক। কিন্তু যদি কোনও রাজ্যে অক্সিজেনের প্রয়োজন 'এক্স' থাকে, তাহলে সেই রাজ্যে কেন ‘এক্সের’ সঙ্গে ‘ওয়াই’ পরিমাণ অক্সিজেন সরবরাহ করা হচ্ছে?‌ কেন সেই উদ্বৃত্ত ‘ওয়াই’ পরিমাণ অক্সিজেন দিল্লি পাবে না?‌ যেখানে দিল্লির চাহিদার তুলনায় জোগান কম সেখানে কেন দিল্লিতে অক্সিজেন সরবরাহ হবে না?‌ 

আদালতকে জানানো হয়, মধ্যপ্রদেশে যেখানে অক্সিজেনের চাহিদা ৪৪৫ মেট্রিক টন, সেখানে অক্সিজেন সরবরাহ হচ্ছে ৫৪০ মেট্রিক টন। অন্যদিকে, মহারাষ্ট্রে যেখানে অক্সিজেনের চাহিদা ১,৫০০ মেট্রিক টন, সেখানে অক্সিজেন সরবরাহ হচ্ছে ১,৬৬১ মেট্রিকট ন। এই পরিসংখ্যান তুলে ধরার পরই বিচারপতি বিপিন সিংভি ও বিচারপতি রেখা পাল্লি প্রশ্ন করেন, মধ্যপ্রদেশ যদি চাহিদার তুলনায় বেশি অক্সিজেন পেতে পারে, তাহলে দিল্লি নয় কেন?‌

সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা আদালতকে জানান, কেন্দ্র এই বিষয়ে আদালতকে জানাবে কেন মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্রকে চাহিদার তুলনায় বেশি অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়েছে।একইসঙ্গে অবশ্য সলিসিটর জেনারেল জানান, গুজরাত-সহ এমন অনেক রাজ্য অবশ্য আছে যেখানেও চাহিদার তুলনায় কম অক্সিজেন জোগান দেওয়া হয়েছে।

আদালতের তরফে দিল্লি পুলিশকে আদেশ দেওয়া হয়, যদি কোনও ব্যক্তি জরুরি ভিত্তিতে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেশি দামে অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনেও থাকেন, তাহলেও যেন সেই সিলিন্ডার বাজেয়াপ্ত না করা হয়। আদালত স্পষ্ট জানিয়েছে, যদি পুলিশ অক্সিজেন সিলিন্ডার বা ওষুধ বাজেয়াপ্ত করেও থাকে, তাহলেও যেন তা তদন্তকারী অফিসার ডেপুটি কমিশনারকে জানায়।

বন্ধ করুন