বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মোদীর জন্য এল নতুন গাড়ি,১২ কোটির ব্লাস্টপ্রুফ মার্সিডিজে আছে দুর্দান্ত সব ফিচার
মোদীর জন্য এল নতুন গাড়ি (ছবি সৌজন্যে টুইটার)
মোদীর জন্য এল নতুন গাড়ি (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

মোদীর জন্য এল নতুন গাড়ি,১২ কোটির ব্লাস্টপ্রুফ মার্সিডিজে আছে দুর্দান্ত সব ফিচার

  • বিভিন্ন ফিচারে সাঁজোয়া এই গাড়ির আগে রেঞ্জ রোভার, টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজারে চড়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্য নতুন গাড়ি এল। এখন থেকে প্রধানমন্ত্রী মার্সিডিজ-মেবাক এস৬৫০ গাড়িতে চড়বেন। বিভিন্ন ফিচারে সাঁজোয়া এই গাড়ির আগে রেঞ্জ রোভার, টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজারে চড়তেন প্রধানমন্ত্রী। সম্প্রতি ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে হায়দরাবাদ হাউজে এই গাড়ি করে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। হিমাচলেও মোদীকে তাঁর নতুন গাড়িতে দেখা যায়।

মার্সিডিজ-মেবাক এস৬৫০ গার্ড গাড়িটি ভিআর-১০ স্তরের সুরক্ষা সহ লেটেস্ট ফেসলিফ্টেড মডেল। ‘প্রোডাকশন গাড়ি’গুলির মধ্যে এই নিরাপত্তা সর্বোচ্চ পর্যায়ের। রিপোর্ট অনুযায়ী, মার্সিডিজ-মেবাক গত বছর ভারতে এস৬০০ গার্ড লঞ্চ করে। এর দাম ১০.৫ কোটি ছিল। এবং এস৬৫০ মডেলটির দাম ১২ কোটিরও বেশি হতে পারে।

মোদীর নতুন লিমুজিন গাড়িটি চকচকে কালো রঙের। গাড়ির কাচও কালো। মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন মোদীকে বুলেটপ্রুফ মহিন্দ্রা স্কর্পিওতে চড়তে দেখা যেত। এরপর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর মোদীকে ২০১৪ সালে বিএমডাব্লুতে চড়তে দেখা যায়। এরপর রেঞ্জ রোভার, টয়োটা ল্যান্ড ক্রুজারে চড়তে দেখা যায় মোদীকে। আর এবার মার্সিডিজ-মেবাক এস৬৫০ গার্ডে চড়বেন মোদী।

মার্সিডিজ-মেবাক এস৬৫০ গার্ড গাড়িটি বুলেটপ্রুফ হওয়ার পাশাপাশি ব্লাস্টপ্রুফ। দুই কিলোমিটার দূরত্ব থেকে ১৫ কেজির বিস্ফোরণেও এই গাড়িটি উড়ে যাবে না। সেই ক্ষেত্রে গাড়ির বনেট উঠে যাবে। আবার মাইন বিস্ফোরণের জন্য গাড়ির নিচে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। গাড়ির চারটি চাকার টায়ারই ‘ফ্ল্যাট’, অর্থাত্, টায়ার পাংচার করেও দুর্ঘটনার কবলে ফেলা যাবে না গাড়িটিকে। এই গাড়ির ইঞ্জিন ৬.০ লিটার টুইন টার্বো ভি ১২। এর শক্তি ৫০০ হর্সপওয়ার। নিরাপত্তার কথা ভেবে গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রিত হবে ঘণ্টা প্রতি ১৬০ কিলোমিটারে।

 

 

 

বন্ধ করুন