জল সংরক্ষণের আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
জল সংরক্ষণের আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

'সমস্যা সমাধানের পথ হিংসা নয়', বছরের প্রথম 'মন কি বাত'-এ বললেন মোদী

জল সংরক্ষণের ছবি, তথ্য, গল্প, ভিডিয়ো টুইট করার আর্জিও জানান মোদী।

প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে অহিংস নীতির পক্ষে সওয়াল করেছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। প্রজাতন্ত্র দিবসে একই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বললেন, হিংসার মাধ্যমে কোনও সমস্যার সমাধান হবে না।

আরও পড়ুন : Republic Day 2020: একাধিক প্রথমের সাক্ষী থাকল দিল্লির রাজপথ

দিল্লির রাজপথে কুচকাওয়াজের কারণে বছরের প্রথম 'মন কি বাত' নির্ধারিত সময়ে হয়নি। সন্ধ্যা নাগাদ 'মন কি বাত' হয়। সেখানে মোদী দাবি করেন, উত্তর-পূর্বে বিচ্ছিন্নতাবাদের সংখ্যা কমেছে। গত বছর ত্রিপুরাতে ৮০ জন হিংসার পথ ছেড়ে সমাজের মূলস্রোতে ফিরে এসেছেন। মোদীর কথায়, 'দেশবাসী এটা জেনে আনন্দিত হবেন যে উত্তর-পূর্ব বিচ্ছিন্নতাবাদ অনেকটাই কমেছে। কারণ সেই অঞ্চলের প্রতিটি বিষয় আলোচনার মাধ্যমে সৎ ও শান্তিপূর্ণভাবে মেটানো হয়েছে।'

আরও পড়ুন : Republic Day 2020: শক্তিপ্রদর্শন ভারতের, প্রথমবার অ্যাপাচে, চিনুক, ধানুষ শো

আলোচনার মাধ্যমে যে কোনও সমস্যা সমাধানের আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, 'যাঁরা এখনও হিংসা ও অস্ত্রের মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের রাস্তা খুঁজছেন, প্রজাতন্ত্র দিবসে তাঁদের কাছে আর্জি, সমাজের মূলস্রোতে ফিরে আসুন। সমস্যা সমাধানের জন্য দেশের ও নিজেদের ক্ষমতার উপর তাঁদের ভরসা রাখা উচিত।'

পাশপাশি, এদিনের 'মন কি বাত' অনুষ্ঠান গগনযান অভিয়ান নিয়েও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন মোদী। মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে ভারতীয় বায়ুসেনার যে চার পাইলট নির্বাচিত হয়েছেন, তাঁদের অভিনন্দন জানান তিনি। বলেন, 'নতুন ভারতের একটি মাইলস্টোন হতে চলেছে মিশন গগনযান।'

'মন কি বাত' অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কীভাবে পরিবেশ সচেতনতা গড়ে উঠেছে সে কথাও তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, 'ভারতীয়রা যে পারেন, সেই বিশ্বাস জন্মাচ্ছে।' একইসঙ্গে জল সংরক্ষণের বিষয়ে আরও সচেতন হওয়ার জন্য দেশবাসীকে আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী। রাজস্থান, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডে স্থানীয়রা কীভাবে জলাভূমি রক্ষা করছেন, সেই কাহিনিও তুলে ধরেন। জল সংরক্ষণের ছবি, তথ্য, গল্প, ভিডিয়ো টুইট করার আর্জিও জানান মোদী।



বন্ধ করুন