বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Sharda University Question Paper: 'ফ্যাসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের মিল আছে?' প্রশ্নের জেরে বিতর্কে বিশ্ববিদ্যালয়
সেই ভাইরাল হওয়া প্রশ্নপত্র (সৌজন্যে টুইটার), সারদা ইউনিভার্সিটি (ডানদিকে, সৌজন্যে Sharda University)
সেই ভাইরাল হওয়া প্রশ্নপত্র (সৌজন্যে টুইটার), সারদা ইউনিভার্সিটি (ডানদিকে, সৌজন্যে Sharda University)

Sharda University Question Paper: 'ফ্যাসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের মিল আছে?' প্রশ্নের জেরে বিতর্কে বিশ্ববিদ্যালয়

  • বিজেপি নেতার টুইট অনুযায়ী, একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশ্ন এসেছেন যে 'আপনি কি ফ্যাসিবাদ বা নাৎসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের কোনও মিল খুঁজে পেয়েছেন? যুক্তি-সহ লিখুন।' সেই প্রশ্ন নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

'ফ্যাসিবাদ বা নাৎসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের কোনও মিল খুঁজে পেয়েছেন?' স্নাতকের পরীক্ষায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে এমনই প্রশ্ন করার অভিযোগ উঠল। একটি মহলের দাবি, যে শিক্ষক প্রশ্ন করেছেন, তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

গত শুক্রবার বিজেপি নেতা বিকাশ প্রীতম সিনহা টুইটারে একটি ওই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্নপত্রের ছবি (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) পোস্ট করেন। ওই ছবি অনুযায়ী, স্নাতক স্তরে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের দ্বিতীয় সেমেস্টারের প্রশ্নপত্র সেটি। তাতে দেখা গিয়েছেে সেকশন 'এ'-র ছয় নম্বর প্রশ্নে লেখা আছে, 'আপনি কি ফ্যাসিবাদ বা নাৎসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের কোনও মিল খুঁজে পেয়েছেন? যুক্তি-সহ লিখুন।'

ওই ছবির (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) সঙ্গে বিজেপি নেতা বলেন, 'সারদা নামের বিশ্ববিদ্যালয়ের কীর্তি দেখুন। পড়ুয়াদের ফ্যাসিবাদ বা নাৎসিবাদের সঙ্গে হিন্দুত্ববাদের মিল খুঁজতে বলা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে, কোনও মুসলিম শিক্ষক প্রশ্নপত্র তৈরি করেছেন।' ওই টুইটের সঙ্গে যোগী আদিত্যনাথকেও ট্যাগ করেন ওই বিজেপি নেতা।

সেই প্রশ্নপত্রের ছবি (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) টুইটারে ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনদের একাংশ ওই বেসককারি বিশ্ববিদ্যালয়ের তীব্র নিন্দায় সরব হন। '#BanShardaUniversity' হ্যাশট্যাগও ট্রেন্ড হয়। তারইমধ্যে একাধিক রিপোর্ট অনুযাযী, যে শিক্ষক প্রশ্ন করেছিলেন, তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

বন্ধ করুন